বশিরের বাড়িতে টাকা ভর্তি ব্যাগ, সুদানে তদন্ত শুরু

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৯:৩৬, এপ্রিল ২১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৯:৩৯, এপ্রিল ২১, ২০১৯

বিক্ষোভের মুখে ক্ষমতাচ্যুত সুদানের প্রেসিডেন্টের বাড়ি থেকে ব্যাগ ভর্তি বিপুল পরিমাণের টাকা উদ্ধারের পর তার বিরুদ্ধে অর্থ পাচারের তদন্ত শুরু হয়েছে। বিচারিক সূত্র উদ্ধৃত করে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, শনিবার সামরিক গোয়েন্দারা বশিরের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ৩ লাখ ৫১ হাজার মার্কিন ডলার ও ৬০ মিলিয়নেরও বেশি ইউরো ভর্তি ব্যাগ খুঁজে পায়। এছাড়াও পাওয়া যায় প্রায় ৫০ লাখ সুদানি পাউন্ড। অর্থ উদ্ধারের ঘটনায় সাবেক প্রেসিডেন্ট আটকের নির্দেশ দিয়ে প্রধান পাবলিক প্রসিকিউটর দ্রুত বিচার শুরু করতে তাকে জিজ্ঞাসাদ করতে বলেছেন। বর্তমানে কোবার কারাগারে আটক থাকা এই প্রেসিডেন্টকে সেখপানেই জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানায় ওই সূত্রটি।দারফুরে গণহত্যার দায়ে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের পরোয়ানা জারি রয়েছে ওমর আল বশিরের বিরুদ্ধে

সুদানের দীর্ঘদিনের শাসক ওমর আল বশিরের বিরুদ্ধে গত ডিসেম্বরে দেশটিতে ব্যাপক বিক্ষোভ শুরু হয়। রুটি ও জ্বালানির দাম বাড়ানো কেন্দ্র করে শুরু হওয়া ওই বিক্ষোভের মুখে গত ১১ এপ্রিল তাকে ক্ষমতাচ্যুত করে দেশটির সেনাবাহিনী। চলতি সপ্তাহে তার পরিবারের তরফ থেকে জানানো হয় সাবেক প্রেসিডেন্টকে তার বাসভবন থেকে রাজধানী খার্তুমের হাই সিকিউরিটি কোবার কারাগারে স্থানান্তর করা হয়েছে।

ওমর আল বশির প্রায়ই দাবি করতেন নীল নদের তীরবর্তী এক দরিদ্র পরিবারে জন্ম তার। মাটির তৈরি ঘরে কেটেছে তার শৈশব। ১৯৮৯ সালে তিনি সুদানের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেন।

বশির বিরোধী বিক্ষোভের নেতৃত্ব দিচ্ছে সুদানের পেশাজীবী সংস্থা। বশিরের পতনের পরও বিশির সংশ্লিষ্টদের ক্ষমতা থেকে সরাতে বিক্ষোভ অব্যাহত রেখেছে সংস্থাটি। বশির ও তার প্রশাসনের কর্মকর্তাদের বিচারের আওতায় আনার দাবি করছে তারা।

গত বুধবার সুদানের ক্ষমতা দখলকারী সামরিক কাউন্সিল কেন্দ্রীয় ব্যাংককে গত ১ এপ্রিল থেকে সব আর্থিক লেনদেন পর্যালোচনা করার নির্দেশ দেন। রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা এসইউএনএ জানিয়েছে, সন্দেহজনক সব তহবিল জব্দ করার নির্দেশ দিয়েছে সামরিক কাউন্সিল।

/জেজে/

লাইভ

টপ