‘বিশেষ সম্পর্ক’ নিয়ে আলোচনায় যুক্তরাজ্য সফরে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৮:২৯, মে ০৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৩১, মে ০৮, ২০১৯

যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের মধ্যকার ‘বিশেষ সম্পর্ক’ নিয়ে আলোচনা করতে লন্ডন সফরে রয়েছেন আমেরিকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। সফরের অংশ হিসেবে বুধবার ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে-এর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন তিনি। এছাড়া যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেরেমি হান্ট-সহ দেশটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গেও তার বৈঠকের কথা রয়েছে। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে এবিসি নিউজ।

মাইক পম্পেওঊর্ধ্বতন ব্রিটিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে ব্রেক্সিটের পর যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের মধ্যকার সম্পর্ক উন্নয়নের সম্ভাবনা নিয়ে ভাষণ দেবেন তিনি।

সফরে প্রথম অনুষ্ঠান হিসেবে যুক্তরাজ্যের ধর্মীয় নেতাদের নিয়ে ধর্মীয় স্বাধীনতা বিষয়ক এক বৈঠকে অংশ নেন পম্পেও। ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেরেমি হান্টও এতে উপস্থিত ছিলেন। এ সময় দেওয়া বক্তব্যে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ট্রাম্প প্রশাসন প্রত্যেকের ধর্ম পালনের অধিকারের ব্যাপারে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। মার্কিন সংবিধানেও এর উল্লেখ রয়েছে।

এমন এক সময়ে পম্পেও-র এ সফর অনুষ্ঠিত হচ্ছে যখন ইরান ও ভেনেজুয়েলার সঙ্গে উত্তেজনাকর পরিস্থিতিতে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। অন্যদিকে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ত্যাগ তথা ব্রেক্সিট কার্যকর নিয়ে অনিশ্চয়তার মধ্যে রয়েছে যুক্তরাজ্য।

এর আগে মঙ্গলবার ফিনল্যান্ডে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের সঙ্গে বৈঠক করেন পম্পেও। দেশটিতে অনুষ্ঠিত আর্কটিক কাউন্সিলের বৈঠকের সাইডলাইন বৈঠকে বসেন দুই নেতা। এ সময় তারা ভেনেজুয়েলা ইস্যুসহ আন্তর্জাতিক নানা বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। বৈঠক পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে দুই নেতা বলেন, তারা আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক ইস্যু এবং কৌশলগত স্থিতিশীলতা নিয়ে আলোচনা করেছেন।

/এমপি/

লাইভ

টপ