বুথফেরত জরিপই সব নয়: ভারতের উপ-রাষ্ট্রপতি

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০০:৪৫, মে ২০, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:৫২, মে ২০, ২০১৯

নির্বাচনে বুথফেরত জরিপই সব নয় বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের উপ-রাষ্ট্রপতি ভেনকাইয়াহ নাইডু। তিনি বলেন, আমাদের মনে রাখতে হবে ১৯৯৯ সালের পর থেকে সবগুলো বুথফেরত জরিপের ফলাফলই ভুল এসেছে। এটি প্রকৃত অর্থ বহন করে না।’

ভারতের উপ-রাষ্ট্রপতি ভেনকাইয়াহ নাইডু

ভারতে লোকসভা নির্বাচনে শেষ ধাপের ভোটগ্রহণ শেষে প্রকাশিত দুই বুথফেরত জরিপে আবারও বিজেপি নেতৃত্বাধীন জোটের ক্ষমতায় আসার আভাস পাওয়া গেছে। রিপাবলিক সি-ভোটার ও টাইমস নাও-ভিএমআর প্রকাশিত জরিপে আভাস দেওয়া হয়েছে, প্রায় তিনশ’র কাছাকাছি আসন নিয়ে আবারও নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় আসছে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট। এদিকে এ পর্যন্ত পাওয়া জরিপের ফলাফলকে গড় করে সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভি বলছে, ২৩ তারিখ ঘোষিত ফলাফলে ২৯৮টি আসন পেতে যাচ্ছে বিজেপি জোট। 

ভেনকাইয়াহ নাইড বলেন, প্রত্যেক দলই আশাবাদী। ২৩ দিন পর্যন্ত তারা এই আত্মবিশ্বাস ধরে রেখেছে। বুথফেরত জরিপের ভিত্তি নেই। ফলে আমাদের চূড়ান্ত ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করতে হবে।

 

উপ-রাষ্ট্রপতি আরও বলেন, রাজ্য ও দেশের একজন দক্ষ নেতা ও স্থিতিশীল সরকার প্রয়োজন। যেই জিতুক না কেন, সেটাই জরুরি।

২০১৯ সালের ১১ এপ্রিল শুরু হয়েছিল ভারতের এবারের লোকসভা নির্বাচন। ইতোমধ্যে ছয় দফার ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। শেষ দফায় মোদি ছাড়াও অন্য হেভিওয়েট প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মনোজ সিনহা, রবিশঙ্কর প্রসাদ, এইচ কে বাদল এবং হরদীপ সিং পুরি। এছাড়া ভাগ্য নির্ধারণ হবে কিরণ খের, সানি দেওল, রবি কিষাণের মতো বিজেপি’র তারকা প্রার্থীদের। ভাগ্য নির্ধারণ হবে তৃণমূল প্রার্থী সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, সৌগত রায়, তারকা প্রার্থী মিমি চক্রবর্তী ও নুসরৎ জাহানের। কংগ্রেসে রয়েছে শত্রুঘ্ন সিনহা ও মীরা কুমারের মতো শক্তিশালী প্রার্থীরা।

/এমএইচ/

লাইভ

টপ