ইভিএম দিয়ে ভোট কারসাজি হয়নি: ভারতীয় নির্বাচন কমিশন

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২১:০০, মে ২১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:২২, মে ২১, ২০১৯

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে ব্যবহৃত ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন বা ইভিএম নিয়ে বেশ কিছু অভিযোগ এলেও দেশটির নির্বাচন কমিশনের দাবি, কোনও কারসাজি করা হয়নি। তারা জানান, নির্বাচনে ব্যবহৃত ইভিএমগুলো নিরাপদ এবং সেগুলো সুরক্ষিত ঘরে রাখা আছে। সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়।

 

সাত দফায় অনুষ্ঠিত লোকসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে ১৯ মে। গণনা থেকে শুরু করে ফল ঘোষণার কাজ এখনও বাকি। এরই মধ্যে কমিশনের বিরুদ্ধে ইভিএমের অস্বচ্ছতা ও সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন পরিচালনা করতে না পারার ব্যর্থতার অভিযোগ তুলেছে বিরোধীরা। কমিশনকে পক্ষপাতদুষ্ট আখ্যাও দিয়েছে বিরোধী শিবির।

এক বিবৃতিতে তারা জানায়, ইভিএম নিয়ে যেসব অভিযোগ আসছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। সংবাদমাধ্যম প্রকাশিত ইভিএমের যে ছবি দেখা গেছে তা এই নির্বাচনে ব্যবহার করা হয়নি। ভোটগ্রহণ শেষে সব ইভিএম নিরাপদে সুরক্ষিত ঘরে আনা হয়েছে। সেখানে দ্বিস্তরবিশিষ্ট নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তারা দাবি করেন,পুরো প্রক্রিয়াটি ভিডিও করা হয়েছে। সিসিটিভি নিরাপত্তা ছিল। প্রত্যেকটি কামরায় নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা নজর রেখেছেন।

কংগ্রেস প্রধান রাহুল গান্ধী ও অন্য বিরোধী নেতারা বিজেপি ও নরেন্দ্র মোদির পক্ষে কাজ করার জন্য নির্বাচন কমিশনকে দোষারোপ করছে। নির্বাচন কমিশনের একাধিক পদক্ষেপের সমালোচনা করেছে বিরোধীরা। কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী থেকে শুরু করে বিরোধী দলের প্রায় নেতাই প্রশ্ন তুলেছেন নির্বাচনের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে। ভোট চলার মাঝেই কমিশন যেভাবে প্রধানমন্ত্রীকে কেদারনাথ এবং বদ্রীনাথে সফর করার সুযোগ দিয়েছে তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। পাশাপাশি একাধিকবার আদর্শ আচরণবিধি ভাঙার অভিযোগ উঠলেও প্রধানমন্ত্রী বা বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ’র বিরুদ্ধে কমিশন কোনও রকম ব্যবস্থা না নেওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়েছেন বিরোধীরা।

/এমএইচ/এমওএফ/

লাইভ

টপ