২৯ মে শপথ নিতে পারেন মোদি, থাকতে পারেন পুতিন-ম্যাক্রোঁ

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৩:৩০, মে ২৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৫৮, মে ২৪, ২০১৯

কংগ্রেস নেতা জওহরলাল নেহরু ও ইন্দিরা গান্ধীর পর নরেন্দ্র মোদি হতে যাচ্ছেন প্রথম ভারতীয় নেতা যিনি টানা দ্বিতীয়বার একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে যাচ্ছেন। বৃহস্পতিবার ভারতের লোকসভা নির্বাচনের ঘোষিত ফলে বিজেপির বড় জয়ের পর তার শপথ নেওয়া এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা। এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপির পক্ষ থেকে নতুন সরকারের শপথ অনুষ্ঠানের তারিখ ঘোষণা করা হয়নি। তবে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো ইঙ্গিত দিয়েছে, আগামী ২৯ মে রাষ্ট্রপতি ভবনে শপথ নিতে পারে মোদির দ্বিতীয় মন্ত্রিসভা। টাইমস নাউ নিউজের খবরে বলা হয়েছে, শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে আমন্ত্রণ জানানো হবে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁকে।

সাত দফায় অনুষ্ঠিত ১৭ তম লোকসভা নির্বাচনের ভোট গণনা হয় ২৩ মে। এদিন নির্বাচন কমিশনের দেওয়া ফল অনুযায়ী ৫৪২টি আসনের মধ্যে ৩৫১টি আসনে এগিয়ে রয়েছে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট। আর কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ জোট এগিয়ে রয়েছে  ৯১টি আসনে। এরইমধ্যে পরাজয় স্বীকার করে মোদিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। একের পর এক বিশ্বনেতাও তাকে শুভেচ্ছা জানিয়ে যাচ্ছেন।

২০১৪ সালের মে মাসে প্রথমবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার অনুষ্ঠানে দক্ষিণ এশিয়ার সার্কভুক্ত দেশগুলোর নেতাদের আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন মোদি। তবে এবারে তিনি বিশ্ব নেতাদের শপথ অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণ পাঠাবেন। টাইমস নাউ নিউজের খবরে বলা হয়েছে, এরইমধ্যে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁকে  ওই শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার আমন্ত্রণ পাঠিয়েছে বিজেপি।

লোকসভার ৫৪৩ আসনের মধ্যে একক দল হিসেবে বিজেপি পেয়েছে ৩০৩ আসন। বিশাল এই জয়ের পর শুক্রবার প্রবীন বিজেপি নেতা এলকে আদভানির বাসভবনে গিয়ে দেখা করেছেন মোদি।

টাইমস নাউ নিউজের খবরে বলা হয়েছে, আগামী ২৮ মে বারানসিতে নিজের নির্বাচনি আসনের জনগণকে ধন্যবাদ জানাতে যাবেন মোদি। সেখান থেকে ফিরে ২৯ মে দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে পারেন মোদি।

/জেজে/

লাইভ

টপ