নবনির্বাচিত আইনপ্রণেতাদের প্রতি মোদির ৫ পরামর্শ

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১২:০৬, মে ২৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:০৫, মে ২৬, ২০১৯

বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোটের নবনির্বাচিত আইনপ্রণেতাদের পাঁচটি নির্দেশনা মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। শনিবার বিকেলে পার্লামেন্ট ভবনের সেন্ট্রাল হলে অনুষ্ঠিত সভায় দেওয়া এক ভাষণে এসব পরামর্শ দেন তিনি। ভারতীয় সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, ভিআইপি সংস্কৃতি এড়িয়ে চলা, সাংবাদমাধ্যমে মন্তব্যের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকাসহ নানা বিষয় উঠে এসেছে তার এসব পরামর্শে।

শনিবার পার্লামেন্টের সেন্টার হলে এনডিএ`র আইন প্রণেতাদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন মোদি

গত বৃহস্পতিবার ভারতের ৫৪৩ আসনের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হয়।  এতে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট ৩৫১ আসনে জয় নিয়ে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়। শনিবার পার্লামেন্ট ভবনের সেন্টার হলে এনডিএ জোটের আইনপ্রণেতাদের ‌এক বৈঠকে নেতা নির্বাচিত হন নরেন্দ্র মোদি। ওই বৈঠকে দেওয়া ভাষণে নবনির্বাচিত আইনপ্রণেতাদের উদ্দেশে বেশ কিছু পরামর্শ রাখেন মোদি।

আইন প্রণেতাদের প্রতি মোদির পরামর্শের প্রথমেই ছিল ভিআইপি সংস্কৃতি এড়িয়ে চলা। তিনি বলেন, ‘এই দেশ ভিআইপি সংস্কৃতি ঘৃণা করে। বিমানবন্দরে চেক করা হলে আমাদের রাগ করা চলবে না’। মোদি বলেন, যদি কোনও আইনপ্রণেতা বিমানবন্দরে সমস্যা তৈরি করেন তাহলে কেউ হয়তো ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দিতে পারে। তিনি বলেন, ‘এটা হলে সেই আইন প্রণেতার লাল বাতি সরাতে আমাদের বেশি বেগ পেতে হবে না, আর তাতে দেশের মানুষের কাছেও ভালো বার্তা পৌঁছাবে’।

সংবাদমাধ্যমে মন্তব্যের ক্ষেত্রেও আইনপ্রণেতাদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন মোদি। অনেকেই মনে করেন প্রজ্ঞা সিং ঠাকুরের মতো প্রথবার নির্বাচিত আইন প্রনেতাদের উদ্দেশ করে ওই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ভোপাল থেকে প্রথমবার নির্বাচিত হওয়া বিজেপির সাংসদ প্রজ্ঞা সিং ঠাকুর সংবাদমাধ্যমে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য বেশ সুপরিচিত। এমন আইনপ্রণেতাদের মোদি বলেন, ‘চাপা (সংবাদমাধ্যমে লিখিত) ও দেখনদারি (টেলিভিশনে প্রচারিত) থেকে দূরে থাকুন। পারলে এগুলো এড়িয়ে চলুন। তাহলে আপনি বহু সমস্যা থেকে মুক্ত থাকবেন’। মোদির আরেক পরামর্শ হলো সাহায্যপ্রার্থীদের সম্পর্কে সতর্ক থাকুন। তিনি বলেন, ‘এমন কিছুতে সুপারিশ করবেন না...এটাই দিল্লির বাতাস (দিল্লিকা বাতাস)’।

এছাড়াও তিনি আইনপ্রণেতাদের সম্ভাব্য মন্ত্রী ও পদপদবীর জন্য সংবাদমাধ্যমের ধারণার মধ্যে না পড়ার পরামর্শ দেন মোদি। তিনি বলেন, ‘এই দেশে এখন অনেক নরেন্দ্র মোদি গজিয়ে উঠেছে আর তারা মন্ত্রিসভা গড়ে ফেলেছে’। মোদি বলেন, ‘সংবাদপত্রের পাতায় কোনও মন্ত্রী তৈরি হবে না বা সেখান থেকে কাউকে সরিয়েও দেওয়া হবে না’। এছাড়া আইন প্রণেতাদের কথাবার্তাতেও পরিবর্তন আনার পরামর্শ দেন মোদি। রুঢ় স্বর পরিবর্তনের পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী। নতুন আইনপ্রণেতাদের আচরণ ও চিন্তাভাবনায় পরির্বতনের তাগিদও ছিলো মোদির পরামর্শের মধ্যে।

/জেজে/

লাইভ

টপ