ইভিএমে প্রোগ্রামিং করা ছিল, বিদেশি শক্তির হাত থাকতে পারে: মমতা

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১২:৫৯, মে ২৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:২৮, মে ২৬, ২০১৯

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ‘আমার ধারণা একটা প্রোগ্রামিং করা ছিল। ভোটের আগে থেকেই আমার কাছে খবর আসছিল। কিন্তু আমি কী করবো? ইভিএম তো ভেঙে দিতে পারি না। যেখানে যেখানে এক লাখ ভোটের ব্যবধানে তৃণমূল হেরেছে, সেখানে আমরা হেরেছি বলে মনে করি না। ওখানেই প্রোগ্রাম সেটিং হয়েছে। সে কারণে দেখুন না বিজেপি এক লাখ ভোটের বেশি ব্যবধানে কয়টা আসনে জিতেছে? আমার দৃঢ়বিশ্বাস, এতে বাইরের হাত রয়েছে। দেশের স্বার্থে সেটা বললাম না।’

লোকসভা ভোটের আগে থেকেই ইভিএম ইস্যুতে সোচ্চার ছিলেন মমতা। এটি ব্যবহার করে বিজেপি ভোট কারচুপি করতে পারে বলে আশঙ্কার কথা জানিয়েছিলেন তিনি। শনিবারের সংবাদ সম্মেলনে সেই অভিযোগ নিয়ে আর কোনও রাখঢাক রাখলেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ইভিএমে যে কারচুপি হতে পারে সে ব্যাপারে কংগ্রেস-সহ ২২টি বিরোধী দলই আশঙ্কা প্রকাশ করছিল। সে জন্য তারা আগে ভিভিপ্যাট গণনার দাবি জানিয়েছিল। তবে ভোটের পর কোথাও কোনও ভিভিপ্যাট গণনা নিয়ে সমস্যা হয়নি। তাই কংগ্রেসও আর কমিশনের বিরুদ্ধে এ ব্যাপারে মুখ খোলেনি। বাকিরাও নয়। সবাই ভোটের ফল মেনে নিয়েছেন। একমাত্র মমতাই তার অবস্থানে অটল রইলেন।

মমতার ভাষায়, কংগ্রেস কখনও কখনও আত্মসমর্পণ করে। কিন্তু বাকিরা ভয় পেলেও আমি পাই না। ওরা যে প্রোগ্রাম সেটিং করেছিল তা ওদের কথাতেই প্রমাণিত। নইলে বাংলায় প্রচারে এসে কী করে বলে ৩০০টা আসন পাবো। কী করে বলে ২৩টা আসনে জিতবো! সেটিং না করলে এটা সম্ভব? সূত্র: দ্য ওয়াল।

/এমপি/এমওএফ/

লাইভ

টপ