সোমবার ভারতজুড়ে চিকিৎসক ধর্মঘটের ডাক, চাপে মমতা সরকার

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২১:১৭, জুন ১৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:১৮, জুন ১৪, ২০১৯

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে রোগীর স্বজনদের হাতে এক শিক্ষানবিস চিকিৎসক লাঞ্ছিত হওয়ার জেরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যয় সরকারের ওপর চাপ বাড়ছে। গত মঙ্গলবার থেকে পশ্চিমবঙ্গে শিক্ষানবিস চিকিৎসকদের ধর্মঘট চলছে। আর আগামী সোমবার দেশব্যাপী ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে ভারতীয় মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন। চিকিৎসকদের বিক্ষোভে বহিরাগতদের ইন্ধন রয়েছে বলে শুক্রবারও অভিযোগ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

কলকাতার এক সরকারি হাসপাতালে মারা যাওয়া এক রোগীর স্বজনদের হাতে এক জুনিয়র চিকিৎসক লাঞ্ছিত হলে গত মঙ্গলবার থেকে রাজ্যের সরকারি হাসপাতালে ধর্মঘট শুরু করে চিকিৎসকদের সংগঠন বেঙ্গল ডক্টরস। আন্দোলনে ক্ষুব্ধ মমতা বৃহস্পতিবার চার ঘণ্টার মধ্যে চিকিৎসকদের কাজে ফেরার আহ্বান জানান। তবে তাতে সাড়া না দিয়ে আন্দোলন চালিয়ে যান তারা।

শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গের চিকিৎসকদের আন্দোলনে সাড়া দিয়ে সোমবার দেশব্যাপী ধর্মঘটের ঘোষণা দেয় ভারতীয় মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন। অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সাইন্স-এর মেডিক্যাল সুপারিনটেনডেন্ট ডি কে শর্মা বলেন, ধর্মঘটের মধ্যে ‘আবাসিক চিকিৎসকেরা নির্ধারিত দায়িত্ব পালন করায় জরুরি সেবা স্বাভাবিকভাবে চলবে’।

জুনিয়র চিকিৎসকদের ধর্মঘটে পশ্চিমবঙ্গের সরকারি হাসপাতালগুলোতে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন রোগীরা। চারদিন ধরে পশ্চিমবঙ্গের হাসপাতালগুলোর জরুরি ওয়ার্ড, আউটডোর সুবিধা ও প্যাথলজিক্যাল সুবিধা বিঘ্নিত হচ্ছে। এরমধ্যে শুক্রবার একযোগে সরকারি হাসপাতাল থেকে পদত্যাগ করেন পশ্চিমবঙ্গের ৩০০ চিকিৎসক। পরিস্থিতির জন্য মমতাকে দায়ী করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন এ ঘটনাকে 'সম্মানের ইস্যু' না বানানোর আহ্বান জানিয়েছেন।

/জেজে/এমওএফ/

লাইভ

টপ