‘পারস্য উপসাগরে আরও সেনা মোতায়েন করতে পারে যুক্তরাষ্ট্র’

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২১:২৭, জুন ১৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৩৪, জুন ১৫, ২০১৯

ইরানের হুমকি মোকাবিলায় পারস্য উপসাগরে আরও সেনা মোতায়েনের পরিকল্পনা করেছে যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার মার্কিন ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী প্যাট্রিক শানাহান তার দেশের এমন অবস্থানের কথা জানান। ওমান সাগরে দুটি তেলবাহী ট্যাংকারে পর উদ্ভূত উত্তেজনাকর পরিস্থিতিতে এমন মন্তব্য করলেন তিনি।

শানাহান বলেন, আপনারা পরিস্থিতির দিকে নজর দিন। নরওয়ের একটি জাহাজ, একটি জাপানি জাহাজে হামলা হয়েছে। সৌদি আরব এবং বিশ্বের সমগ্র তেল পরিবহনের শতকরা ১৫ ভাগের পথ হচ্ছে হরমুজ প্রণালী। ফলে পরিস্থিতি যাতে আরও খারাপ না হয় সেজন্য আমাদের অবশ্যই বাড়তি সেনা মোতায়েনের পরিকল্পনা নেওয়া জরুরি।

তিনি বলেন, ওমান সাগরে তেল ট্যাংকারে হামলায় ইরানের জড়িত থাকার বিষয়ে আমেরিকা আরও প্রমাণ তুলে ধরবে এবং তা দ্রুতই করা হবে।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) সকালে ওমান উপসাগরে দুটি তেলবাহী ট্যাংকারে ভয়াবহ বিস্ফোরণ হয়। ট্যাংকার দুটির একটি মার্শাল আইল্যান্ডের পতাকাবাহী ফ্রন্ট অ্যালটেয়ার এবং অপরটি পানামার পতাকাবাহী কোকুকা কারেজিয়াস। ফ্রন্ট অ্যালটেয়ার নরওয়ের মালিকানাধীন আর কোকুকা জাপানের মালিকানাধীন। বিস্ফোরণের পর দুই ট্যাংকার থেকে ৪৪ জন ক্রুকে উদ্ধার করে ইরানি কর্তৃপক্ষ। বিস্ফোরণের সুনির্দিষ্ট কারণ জানা না গেলেও যুক্তরাষ্ট্র এর জন্য ইরানকে দায়ী করছে। সূত্র: পার্স টুডে।

/এমপি/

লাইভ

টপ