ইরানের প্রতিক্রিয়া অবজ্ঞামূলক ও অপমানজনক: ট্রাম্প

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০২:০৫, জুন ২৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:০৭, জুন ২৬, ২০১৯

ইরানের ওপর নতুন মার্কিন অবরোধ আরোপের পর তেহরানের প্রতিক্রিয়ার কড়া সমালোচনা করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মঙ্গলবার একাধিক টুইট বার্তায় ইরানের প্রতিক্রিয়াকে অবজ্ঞামূলক ও অপমানজনক বলে মন্তব্য করেন ট্রাম্প। তিনি বলেন, তেহরানের নেতারা বাস্তবতা বুঝতে পারছেন না।সোমবার ইরানের ওপর নতুন অবরোধ আরোপ করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট

পূর্ব ঘোষণার ধারাবাহিকতায় সোমবার ইরানের ওপর আবারও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খামেনির কার্যালয়ও এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় রয়েছে। নতুন নিষেধাজ্ঞাকে ‘কঠোর’ আখ্যায়িত করে ট্রাম্প বলেছেন, ওয়াশিংটন তেহরানের ওপর চাপ প্রয়োগ অব্যাহত রাখবে। মার্কিন পদক্ষেপের সমালোচনা করে ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেন, হোয়াইট হাউস মানসিক সমস্যায় ভুগছে। নতুন নিষেধাজ্ঞাকে আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন বলে মনে করছে তেহরান।

তেহরানের প্রতিক্রিয়ার জেরে মঙ্গলবার এই ইস্যুতে একাধিক টুইট করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এসব টুইট বার্তায় তিনি বলেন, ইরান শুধুমাত্র শক্তি ও ক্ষমতা বোঝে। ট্রাম্প বলেন, আমেরিকার কোনও কিছুর ওপর ইরানের যেকোনও হামলা বিপুল ও অপ্রতিরোধ্য শক্তির মুখোমুখি হবে। তিনি বলেন, কোনও কোনও ক্ষেত্রে অপ্রতিরোধ্য অর্থ হবে ধ্বংস হয়ে যাওয়া।

২০১৫ সালে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের দেশগুলোর সঙ্গে পরমাণু নিয়ন্ত্রণবিষয়ক একটি চুক্তি স্বাক্ষর করে ইরান। বিনিময়ে দেশটির ওপর থেকে অর্থনৈতিক অবরোধ তুলে নেওয়া হয়। কিন্তু গত বছর ইউরোপীয় মিত্রদের বাধা সত্ত্বেও ওই চুক্তি থেকে বেরিয়ে যান যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। পরে ইরানের তেল রফতানিসহ বিভিন্ন বিষয়ে একের পর এক অবরোধ আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র। ধারাবাহিক উত্তেজনার মধ্যেই সম্প্রতি মধ্যপ্রাচ্যে আরও এক হাজার মার্কিন সেনা পাঠানোর ঘোষণা দেন ট্রাম্প। এরইমধ্যে গত বৃহস্পতিবার ইরানের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, ‘আরকিউ-৪ গ্লোবাল হক’ নামের একটি মার্কিন ড্রোন ভূপাতিত করেছে ইরানের সেনাবাহিনী। যদিও ট্রাম্পের দাবি, শুধু ড্রোন ভূপাতিতের কারণেই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়নি।

/জেজে/

লাইভ

টপ