নিরাপত্তা ঝুঁকিতে মিসরের ফ্লাইট স্থগিত যুক্তরাজ্যের

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৩:২৭, জুলাই ২১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৩:৩০, জুলাই ২১, ২০১৯

নিরাপত্তার অংশ হিসেবে কায়রোগামী সকল ফ্লাইট এক সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেছে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ। তবে নিরাপত্তার কোনও কারণ সম্পর্কে জানায়নি তারা। এদিকে কায়রো বিমানবন্দরের মুখপাত্র বলেছেন, তাদের এই সম্পর্কে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানায়নি।   

শুক্রবার লন্ডনের হিথরো বিমানবন্দরে কায়রোগামী যাত্রীদের কর্তৃপক্ষ জানায়, তাদের ফ্লাইটটি বাতলি করা হয়েছে এবং আগামী এক সপ্তাহে সেখানে কোনও বিমান যাবে না। এক মুখপাত্র বলেন, আমরা বিশ্বের সব বিমানবন্দরেই আমরা নিরপত্তা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করি। সেটা বিবেচনায় আমরা কায়রো বিমানবন্দরে সাতদিনের জন্য আমাদের কার্যক্রম স্থগিত করেছি।

মুখপাত্র বলেন, আমাদের যাত্রীদের নিরাপত্তাই আমাদের কাছে সবচেয়ে বেশি জরুরি। আমরা নিরাপত্তা হুমকি মনে করেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

ক্রিস্টিন শেলবোর্ন নামে এক যাত্রী বলেন, তিনি এক সপ্তাহের জন্য কায়রো যাচ্ছিলেন। কিন্তু তার বোর্ডিং কার্ড কাজ করছিলো না। তিনি বলেন, সেখানকার কর্মীরা আমার পাস নিয়ে কাজ করছিলো, কিন্তু লাভ হচ্ছিলো না। আধঘণ্টার মধ্যে আবারও চেষ্টা করতে বলা হলো যেন তারা কিছুই জানে না। একটা সময় আমার স্বামী আমাকে বিষয়টি জানায়। তারা কিছুই জানায়নি।

শেলবোর্ন বলেন, বিষয়টা একদমই বাজেভাবে সামাল দেওয়া হয়েছে। আমার ১১ বছরে নাতি খুবই ব্যাথিত।

পরে শুক্রবার ব্রিটিশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তাদের যাত্রীদের মিসরে যাওয়ার ব্যাপারে সতর্ক করে দেয়। সেখানে বলা হয়, বিমানে সন্ত্রাসের বড় ঝুঁকি আছে।

/এমএইচ/

লাইভ

টপ