আটক ব্রিটিশ ট্যাংকার পরিদর্শনে রুশ কূটনীতিকরা

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৯:৪০, জুলাই ২৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৯:৪২, জুলাই ২৮, ২০১৯

হরমুজ প্রণালীতে ইরানের হাতে আটক ব্রিটিশ পতাকাবাহী তেল ট্যাংকার স্টেনো ইম্পেরো পরিদর্শন করেছেন একদল রুশ কূটনীতিক। তারা মূলত ইরানে নিযুক্ত রুশ দূতাবাসের কর্মী। শনিবার ট্যাংকারটি পরিদর্শন করেন তারা। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স।

টুইটারে দেওয়া রুশ দূতাবাসের এক পোস্টে কূটনীতিকদের ট্যাংকারটি পরিদর্শনের কথা নিশ্চিত করা হয়েছে। পরিদর্শনকালে এটির রুশ ক্রুদের সঙ্গেও কথা বলেন তারা।

টুইটারে দেওয়া পোস্টে বলা হয়, নাবিকদের স্বাস্থ্যের অবস্থা ভালো। তারা এখনও ট্যাংকারটিতে রয়েছে। ট্যাংকারটির রুশ ক্রু-দের দেশে ফেরার সময়সীমা নিয়ে ইরানি অংশীদারদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ রাখছে দূতাবাস। টুইটার পোস্টটিতে তিন ক্রু-র সঙ্গে কূটনীতিকদের ছবিও প্রকাশ করা হয়।

রুশ সংবাদমাধ্যম তাস জানিয়েছে, ট্যাংকারটির রুশ ক্রু-দের কোনও অভিযোগ নেই। তাদের প্রয়োজনীয় সব সামগ্রী দেওয়া হচ্ছে। কোনও বিধিনিষেধ ছাড়াই স্বজনদের সঙ্গে তারা যোগাযোগ করতে পারছেন।

রুশ কূটনীতিকদের পরিদর্শনের আগে ইরানের সরকারি টেলিভিশনে আটককৃত ব্রিটিশ ট্যাংকারটির ভিডিও প্রকাশ করা হয়। ২০ জুলাই ট্যাংকারটি আটক করে ইরান। এটি আটকের কথা জানিয়ে আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেয় ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি। বিবৃতিতে বলা হয়, আন্তর্জাতিক আইন অমান্য করায় হরমুজ প্রণালী থেকে ২৩ ক্রু-সহ একটি ব্রিটিশ তেল ট্যাংকার আটক করা হয়েছে।

আইআরজিসি’র দাবি, তেল ট্যাংকারটি তিনটি আইন লঙ্ঘন করেছে। এটি আন্তর্জাতিক পানিসীমা থেকে ইরানের পানিসীমায় ঢুকে পড়েছিল, নিজেকে শনাক্তকরণের যন্ত্রপাতি বন্ধ করে রেখেছিল এবং আইআরজিসি’র পক্ষ থেকে বারবার সতর্ক করা হলেও তাতে ভ্রুক্ষেপ করেনি।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, তেল ট্যাংকারটি আটক করে ইরানের উপকূলে নিয়ে আসা হয়েছে এবং আইনগত বিষয়গুলো খতিয়ে দেখার জন্য এটিকে হরমুজগান প্রদেশের বন্দর ও নৌচলাচল বিষয়ক সংস্থার কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে প্রচারিত ভিডিওতে দেখা গেছে, স্টেনো ইম্পেরোকে ইরানি সেনাদের স্পিডবোট ও হেলিকপ্টার ঘিরে রয়েছে। পরে ট্যাংকারকে ইরানের জলসীমায় নিয়ে আসতে দেখা যায়। তবে ট্যাংকারটিতে কোনও ব্রিটিশ ক্রু ছিলেন না।

/এমপি/

লাইভ

টপ