কাশ্মিরে কারফিউ শিথিল হবে ১৫ আগস্টের পর

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৮:৫৭, আগস্ট ১৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৮:৫৯, আগস্ট ১৪, ২০১৯

১৫ আগস্টের পর কাশ্মির উপত্যকায় জনসাধারণের চলাফেরায় আরোপিত বিধিনিষেধ (কারফিউ) শিথিল করা হতে পারে; জানিয়েছেন গভর্নর সত্যপাল মালিক। সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে তিনি আশা প্রকাশ করেছেন, ৭ থেকে ১০ দিনের মধ্যে পরিস্থিতির উন্নতি হবে। তখন পর্যায়ক্রমে যোগাযোগ ব্যবস্থার ওপর আরোপিত নিয়ন্ত্রণ প্রত্যাহার করা হবে।

গত ৫ আগস্ট (সোমবার) ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের মধ্য দিয়ে কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসনের অধিকার ও বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নেয় বিজেপি নেতৃত্বাধীন ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। ওই দিন সকাল থেকে জম্মু-কাশ্মির কার্যত অচলাবস্থার মধ্যে রয়েছে। দোকান, স্কুল, কলেজ ও অফিস বন্ধ রাখা হয়েছে। কোনও গণপরিবহন নেই। ইন্টারনেট-মোবাইল পরিষেবাও সীমিত। শুক্রবার জুমার নামাজ ও ঈদকে সামনে রেখে কারফিউ শিথিলের ঘোষণা দিয়েও রবিবার তা পুনর্বহাল করা হয়।

উপত্যকায় বন্ধ করে রাখা টেলিযোগাযোগ ও ইন্টারনেট কবে চালু হবে সে বিষয়ে জানতে চাইলে মালিক জানান, তরুণ সমাজকে বিপথে পরিচালিত করে সংগঠিত করতে ফোন ও ইন্টারনেটকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে। তাই পরিস্থিতি অনুকূলে না আসা পর্যন্ত উপত্যকার সঙ্গে বাইরের যোগাযোগের ক্ষেত্রে সাবধানতা অবলম্বন করতে চান তিনি।

রাজ্যপাল আরও বলেন, ‘আমরা পরিস্থিতি ঠিক না হওয়া পর্যন্ত ওসব জিনিস (টেলিযোগাযোগ ও ইন্টারনেট) শত্রুকে ব্যবহার করা সুযোগ করে দিতে চাই না। এক সপ্তাহ থেকে ১০ দিনের মধ্যে সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে। তারপর ধীরেসুস্থে যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে।’

 

/বিএ/

লাইভ

টপ