হুথি আন্দোলনে প্রকাশ্যে অকুণ্ঠ সমর্থন খামেনির

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৫:৪৮, আগস্ট ১৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:২৯, আগস্ট ১৪, ২০১৯

ইয়েমেনের হুথি আন্দোলনে সমর্থন অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি। এ সময় যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটির আঞ্চলিক অখণ্ডতা রক্ষার জন্য ইয়েমেনিদের মধ্যে সংলাপের আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম রয়টার্সের বরাত দিয়ে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মিডলইস্ট মনিটরের এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে এসেছে।

 

২০১৫ সালে ইয়েমেনের প্রেসিডেন্ট মনসুর হাদিকে উচ্ছেদ করে রাজধানী সানা দখলে নেয় ইরান সমর্থিত শিয়াপন্থী হুথি বিদ্রোহীরা। সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে পালিয়ে যান হাদি। ২০১৫ সালের মার্চে হুথি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে মিত্রদের নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তায় ‘অপারেশন ডিসাইসিভ স্টর্ম’ নামে সামরিক অভিযান শুরু করে সৌদি আরব। সৌদি জোটের অভিযান শুরুর পর এ পর্যন্ত নারী-শিশুসহ হাজার হাজার বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে। এ যুদ্ধ ইয়েমেনকে দুর্ভিক্ষের কিনারায় পৌঁছে দিয়েছে। গত ডিসেম্বরের গোড়ার দিকে জাতিসংঘের পক্ষ থেকে বলা হয়, যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেনে মানবিক সহায়তার জন্য ৪০০ কোটি মার্কিন ডলার প্রয়োজন। হুথি বিদ্রোহীরা সানাসহ অধিকাংশ জনাকীর্ণ এলাকা নিয়ন্ত্রণ করে। তারা সম্প্রতি ইরানের আঞ্চলিক শত্রু সৌদি আরবের ওপর হামলা জোরদার করেছে। জবাবে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট সানার চারপাশে হুথি নিয়ন্ত্রিত এলাকায় বিদ্রোহীদের ওপরও হামলা চালাচ্ছে।

ইরানের আধা সরকারি সংবাদমাধ্যম তাসনিম জানিয়েছে, কয়েকদিন আগে তেহরানে এসেছে হুথিদের একটি প্রতিনিধিদল। হুথি আন্দোলনের নেতা আবদেল মালেক আল হুথির পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ নেতা খামেনিকে একটি চিঠি দেওয়া হয়েছে। তবে ওই প্রতিবেদনে এ ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি।

‘আমি ইয়েমেনের নারী-পুরুষের প্রতিরোধের পক্ষে আমার সমর্থন ঘোষণা করছি ... ইয়েমেনের মানুষ ...একটি শক্তিশালী সরকার প্রতিষ্ঠা করবে’। রাষ্ট্রীয় টিভিতে সর্বোচ্চ নেতা খামেনি হুথি আন্দোলন পরিদর্শনকারী প্রধান আলোচক মোহাম্মদ আবদুল-সালামের সঙ্গে বৈঠকে এ কথা বলেছেন।
আধা সরকারি সংবাদমাধ্যম ফার্স’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘তেহরানে প্রথমবারের মতো হুথিদের সিনিয়র এক প্রতিনিধির সঙ্গে আলোচনা করেছেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা খামেনি। ইয়েমেনকে দ্বিখণ্ডিত করার জন্য সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের বিরুদ্ধে শক্ত প্রতিরোধের আহ্বান জানিয়েছেন ইরানের এ সর্বোচ্চ নেতা।’

টিভি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তিনি বলেছেন, ‘সার্বভৌম অখণ্ডতার সঙ্গে ঐক্যবদ্ধ ও সুসংহত ইয়েমেনকে সমর্থন দেওয়া উচিত। ইয়েমেনের ধর্মীয় ও জাতিগত বৈচিত্র্য দেওয়া এবং অখণ্ডতা রক্ষার জন্য অভ্যন্তরীণ সংলাপ প্রয়োজন।’ তেহরান ইয়েমেনের হুথিদের সামরিক ও আর্থিক সহায়তা দিচ্ছে; যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের উপসাগরীয় মিত্রদের এমন অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে ইরানের ধর্মীয় শাসকরা। এই গভীরতর সংকটের জন্য রিয়াদকে দোষ দিচ্ছে ইরান।

এইচকে/বিএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ