কাশ্মিরের কারফিউ প্রত্যাহারে ভারতের প্রতি ওআইসির আহ্বান

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৪:২৩, আগস্ট ১৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:২৬, আগস্ট ১৭, ২০১৯

ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মিরে ১২ দিন ধরে জারি করা কারফিউ তুলে নিতে দেশটির সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশন (ওআইসি)। শনিবার পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম ডন জানিয়েছে, ওআইসির এই আহ্বানের কথা এক ভিডিও বার্তায় জানিয়েছেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি।

গত ৫ আগস্ট ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের মধ্য দিয়ে কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসনের অধিকার ও বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নেয় বিজেপি নেতৃত্বাধীন দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার। লাদাখ ও কাশ্মিরকে দুটি পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করতে পার্লামেন্টে বিল আনা হয়। বিরোধীদের ঐক্যবদ্ধ বিরোধিতার অভাবে ভারতের লোকসভা ও রাজ্যসভা—দুই কক্ষেই পাস হয়ে যায় বিলটি।

এ সিদ্ধান্তের পর জাতিসংঘে বৈঠকের আবেদন করেছিল পাকিস্তান। কিন্তু এতে কাজ না হওয়ায় দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি চিঠি দেন নিরাপত্তা পরিষদে। নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতি জোয়ানা রোনেকাকে এই চিঠি দেন জাতিসংঘে নিযুক্ত পাকিস্তানের স্থায়ী প্রতিনিধি মালেহা লোদি। পরে কুরেশি সমর্থন আদায়ে চীন সফর করেন। বুধবার চীন নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের জন্য আহ্বান জানালে শুক্রবার তা অনুষ্ঠিত হয়। কাশ্মির ইস্যুতে দীর্ঘ অর্ধযুগ পর বৈঠকে বসলেও সদস্য দেশগুলো কোনও ঐক্যমতে পৌঁছাতে পারেনি। ফলে আনুষ্ঠানিক কোনও বিবৃতিও দেওয়া হয়নি।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, নিরাপত্তা পরিষদে কাশ্মির ইস্যু তোলার পর এখন ওআইসির বিবৃতি আদায় পাকিস্তানের কূটনৈতিক অর্জন। সম্প্রতি জেদ্দায় ওআইসি সদস্যরা এ বিষয়ে সহমত জানায় ও একটি বিবৃতি দেয়।

বিবৃতিতে ওআইসি বলেছে, কাশ্মিরে যেনও মুসলিমদের মানবাধিকার রক্ষা পায় ও ধর্ম পালনে বাধা না হয়। এছাড়া জাতিসংঘসহ অন্যান্য আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের এ বিষয়ে নজর দেওয়া উচিত।

 

 

/এএ/

লাইভ

টপ