নির্বাচনের সময়েও গাজায় অভিযান বন্ধ করবে না ইসরায়েল: নেতানিয়াহু

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০১:২১, আগস্ট ২০, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:২১, আগস্ট ২০, ২০১৯

ইসরায়েলের আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের প্রচারণার সময়েও দখলকৃত গাজা উপত্যকায় সেনা অভিযান বন্ধ হবে না বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু।  রবিবার তিনি গাজায় ফিলিস্তিনি নাগরিক হত্যায় সেনাবাহিনীর প্রশংসা করেন। দুই দিনের ইউক্রেন সফরে রওনা হওয়ার আগে নেতানিয়াহু বলেন, যারা বলছেন নির্বাচনি বিবেচনার কারণে গাজায় বিস্তৃত অভিযান বন্ধ রাখা হবে তারা ভুল বলছেন।ইউক্রেনের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার আগে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন নেতানিয়াহু

টানা এক যুগের ইসরায়েলি অবরোধে পৃথিবীর বৃহত্তম উন্মূক্ত কারাগারে রূপান্তরিত হয়েছে গাজা উপত্যকা। অবরোধ প্রত্যাহারের দাবিতে গত বছর থেকে সীমান্তে সাপ্তাহিক বিক্ষোভ করে আসছে ফিলিস্তিনিরা। তখন থেকে এ পর্যন্ত সেখানকার বেসামরিক অঞ্চলে ইসরায়েলি সেনাদের গুলিতে ২৭০ ফিলিস্তিনি প্রাণ হারিয়েছে। আহত হয়েছে কয়েক হাজার। এ বছর মে মাসের প্রথম সপ্তাহে টানা তিনদিনের আগ্রাসনে গাজা উপত্যকায় কয়েক শ’ অবস্থানে ইসরায়েলের বিমান হামলায় ২৩ ফিলিস্তিনি নিহত হয়। এক পর্যায়ে মিসরীয় মধ্যস্থতাকারীর উদ্যোগে অস্ত্রবিরতিতে সম্মত হয় ফিলিস্তিনি জাতিমুক্তি আন্দোলনের সশস্ত্র সংগঠন হামাস ও ইসরায়েল।

শনিবার (১৭ আগস্ট) ইসরায়েলি সেনাবাহিনী দাবি করে, গাজা উপত্যকা থেকে তাদের দেশ লক্ষ্য করে তিনটি রকেট নিক্ষেপ করা হয়েছে। তার মধ্যে দুইটি রকেট আইরন ডোম বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা দ্বারা প্রতিহত করা হয়েছে। বাকি একটি রকেট সেদরত এলাকায় আঘাত হানলেও কেউ হতাহত হয়নি। এই ঘটনার পরে তিন সশস্ত্র ফিলিস্তিনিকে গুলি করে হত্যার কথা জানায় ইসরায়েলি বাহিনী। তাদের দাবি ইসরায়েলে অনুপ্রবেশের চেষ্টার সময় তাদের হত্যা করা হয়েছে।

রবিবার সকালে গাজায় স্থল আগ্রাসনের সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়ে ইসরায়েলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইসরায়েল কাটজ আর্মি রেডিওকে বলেন, ‘গতকাল (শনিবার) সিদরত যা ঘটেছে তার জবাব না দিয়ে ছাড়া হবে না। আমরা বিস্তৃত অভিযান না চালিয়ে (হামলা)নিবৃত্ত রাখার নীতি বজায় রাখছি’। একই দিন গাজা উপত্যকার সীমান্ত এলাকা পরিদর্শন করেন ব্লু অ্যান্ড হোয়াইট পার্টির নেতা ও সাবেক সেনাপ্রধান বেনি গান্টজ। নেতানিয়াহু সরকারের নীতির সমালোচনা করেন তিনি। বলেন তার দল নির্বাচিত হলে হামাসকে সামরিকভাবে পরাজিত করা হবে।

এমন সমালোচনার মুখে রবিবার ইউক্রেন সফরে রওনা দেওয়ার আগে ইসরায়েলের বেন গুরিয়ন বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। তিনি বলেন, ‘আমার লক্ষ্য হলো নিরাপত্তা ও শান্তি বজায় রাখা আর এজন্য আমরা প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নিচ্ছি’। ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি শুনেছেন কেউ কেউ বলছে নির্বাচনি বিবেচনা থেকে গাজায় বিস্তৃত অভিযান চালানো হচ্ছে না। এর জবাবে তিনি বলেন, ‘এটা ঠিক নয়। আমাকে যারা চেনে তারা প্রত্যেকেই জানে আমার বিবেচনা যথাযথ, সঠিক এবং নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে পূর্ণাঙ্গ সমন্বয় করে দৃঢ়তার সঙ্গে কাজ করি’। নেতানিয়াহু বলেন, ‘আমরা প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নিচ্ছি আর অপর পক্ষ আমাদের শক্তি বুঝতে পারছে’।

/জেজে/

লাইভ

টপ