যুক্তরাজ্যের নতুন কর্মসংস্থানমন্ত্রী থেরেস কফি

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৫:৫৮, সেপ্টেম্বর ০৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:১৪, সেপ্টেম্বর ০৮, ২০১৯

যুক্তরাজ্যের নতুন কর্মসংস্থান ও পেনশন বিষয়ক মন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন থেরেস কফি। রবিবার প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন-এর দফতর থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। থেরেস কফি ব্রেক্সিট ইস্যুতে শনিবার পদত্যাগ করা আম্বার রাডের স্থলাভিষিক্ত হবেন। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম রয়টার্স।
এর আগে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়ে সদ্য বিদায়ী মন্ত্রী আম্বার রাড বলেন, মডারেট কনজারভেটিভরা যেখানে দায়িত্বে নেই সেখানে তিনি থাকতে পারেন না।

ব্রেক্সিট ইস্যুতে সমঝোতায় পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়ে চলতি বছরের মে মাসে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পদত্যাগের ঘোষণা দেন থেরেসা মে। তিনি সরে দাঁড়ানোর পর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন কট্টর ব্রেক্সিটপন্থী বরিস জনসন। আগামী ৩১ অক্টোবর নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ব্রেক্সিট বাস্তবায়নের ঘোষণা দেন তিনি। প্রয়োজনে চুক্তিহীন ব্রেক্সিট বাস্তবায়নেরও ইঙ্গিত দেন জনসন। ৩১ অক্টোবরের মধ্যে চুক্তিবিহীন ব্রেক্সিট এড়াতে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের কাছে সময়সীমা বর্ধিত করার আহ্বান সম্বলিত একটি বিল এখন রাজকীয় অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে। ব্রেক্সিটের সময় বাড়ানো সংক্রান্ত আন্তঃদলীয় বিলটি শুক্রবার (৬ সেপ্টেম্বর) ব্রিটিশ পার্লামেন্টে পাস হয়। তবে বরিস জনসন বলেছেন, ব্রেক্সিট বিলম্বিত করার জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের কাছে আবেদন করার চেয়ে তিনি খাদে পড়ে মরে যাওয়াকে বেছে নেবেন।

এমন পরিস্থিতিতে চুক্তিহীন ব্রেক্সিটের সমালোচনা করে মন্ত্রিসভা ছাড়েন অ্যাম্বার রাড। এরপরই নতুন মন্ত্রী হিসেবে থেরেস কফি-কে বেছে নেন বরিস জনসন।

/এমপি/এমএমজে/

লাইভ

টপ