ইসরায়েলি ড্রোন ভূপাতিত করার দাবি হিজবুল্লাহর

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৮:৫৭, সেপ্টেম্বর ০৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:০০, সেপ্টেম্বর ০৯, ২০১৯

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, দক্ষিণ লেবাননে নিয়মিত অভিযান পরিচালনার সময় তাদের একটি ড্রোন ভূপাতিত হয়েছে। তবে কীভাবে ড্রোনটি ভূপাতিত হয়েছে, সে সম্পর্কে কিছু জানায়নি তারা। ইরান সমর্থিত সশস্ত্র সংগঠন হিজবুল্লাহ’র দাবি, রামিয়া শহরের প্রবেশ মুখে তারাই ড্রোনটি গুলি করে ভূপাতিত করেছে। এটি এখন তাদের যোদ্ধাদের হাতে রয়েছে।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী তাদের বিবৃতিতে জানিয়েছে, লেবাননের দক্ষিণাঞ্চলে রুটিনমাফিক অভিযানের সময় তাদের কয়েকটি ড্রোনের মধ্যে একটি ভূপাতিত হয়। তবে কীভাবে এই দুর্ঘটনা হয়েছে সে সম্পর্কে কোনও তথ্য দেয়নি তারা। কর্তৃপক্ষ দাবি করেছে, ড্রোন ভূপাতিত হওয়ার ব্যাপারে কোনও উদ্বেগজনক তথ্য তাদের হাতে নেই। তবে  হিজবুল্লাহ’র দাবি, ‘উপযুক্ত অস্ত্র’ দিয়ে ড্রোনটিকে প্রতিহত করেছে তারা।

সম্প্রতি ইসরায়েল সিরিয়ার দামেস্কের কাছে বিমান হামলার দায় স্বীকার করার পর হিজবুল্লাহ প্রধান হাসান নসরুল্লাহ বলেছিলেন, দেশটির ড্রোন লেবাননের আকাশসীমায় প্রবেশ করলে সঙ্গে সঙ্গে গুলি করে তা ভূপাতিত করা হবে। কিছুদিনের মাথায় তারা ইসরায়েলি ড্রোন ভূপাতিতের দাবি করলো। নিজেদের মুখপত্র সম্প্রাচারমাধ্যম আল মানার টিভিতে এক বিবৃতির মাধ্যমে হিজবুল্লাহ দাবি করে, সোমবার সকালে ভূপাতিত করা ওই মানববিহীন বিমান এখন তাদের হাতে রয়েছে।  

আল জাজিরার বৈরুত প্রতিনিধি জেইনা কুর্দ বলেছেন, ২০০৬ সালে হিজবুল্লাহ ও ইসরায়েলের যুদ্ধের সময় থেকে এই প্রথম ওই সশস্ত্র গোষ্ঠী দাবি করেছে তারা ইসরায়েলের একটি ড্রোন ভূপাতিত করেছে। তিনি জানিয়েছেন, ‘হিজবুল্লাহ এক ধরনের প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা করছে, কারণ ইসরায়েল নানান পথে প্রতিবেশি সিরিয়ায় নির্বিচারে তাদের বর্ণিত ইরান সমর্থিত ঘাঁটিকে লক্ষ্যবস্তু বানিয়ে তুলছে।

 

/এইচকে/বিএ/

লাইভ

টপ