গুজরাটে নৌকা উদ্ধার, জঙ্গি হামলার আশঙ্কায় সতর্কতা জারি

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২৩:৩৬, সেপ্টেম্বর ০৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৩৮, সেপ্টেম্বর ০৯, ২০১৯

দক্ষিণ ভারতে জঙ্গি হামলার আশঙ্কায় সতর্কতা জারি করেছে ভারত। সোমবার গুজরাটে কয়েকটি পরিত্যক্ত নৌকা উদ্ধারের পর এই সতর্কতা জারি করা হয়। এক নিরাপত্তা কর্মকর্তার বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এখবর জানিয়েছে। নিরাপত্তা কর্মকর্তা জানান, সেনাবাহিনী গোয়েন্দা তথ্যে জানতে পেরেছে দক্ষিণ ভারতে হামলা চালাতে পারে জঙ্গিরা।

সাউদার্ন কমান্ডের জেনারেল কমান্ডিং অফিসার এসকে সাইনি বলেন, আমরা অনেক তথ্য পেয়েছি দক্ষিণ ভারত এবং ভারতের উপূকলবর্তী এলাকায় জঙ্গি হামলা হতে পারে। কিছু পরিত্যক্ত নৌকা উদ্ধার করা হয়েছে স্যার ক্রিক এলাকা থেকে।

সেনা কর্মকর্তা আরও জানান, সতর্কতার কথা মাথায় রেখে স্যার ক্রিক এলাকায় পদক্ষেপ নিয়েছে সেনাবাহিনী।

সেনা কর্মকর্তার মন্তব্যের পরই কেরালার সব জেলা পুলিশ প্রধানকে সতর্কবার্তা পাঠিয়েছেন রাজ্যের পুলিশ প্রধান। বিশেষ করে উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে নজর রাখার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। বাসস্ট্যান্ড, বিমানবন্দর এবং শপিং মলের মতো জনবহুল এলাকাগুলিতেও নজর রাখার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

৫ আগস্ট জম্মু-কাশ্মিরের বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা বাতিল এবং রাজ্যটিকে ভেঙে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভাগ করে ভারত। এরপরই ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে উত্তেজনা ছড়ায়। এই সিদ্ধান্তের পর, ভারতের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্কের অবনতি ঘটায় পাকিস্তান এবং ভারতের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করে। ভারতের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, কাশ্মির নিয়ে নয়া দিল্লির সিদ্ধান্ত অভ্যন্তরীণ বিষয়।

এর আগে ভারতের নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল কারামবির সিং বলেছিলেন, ভারতের নৌবাহিনী গোয়েন্দা তথ্যে জানতে পেরেছে জয়েশ-ই-মোহাম্মদ জঙ্গিরা ডুবোপথে হামলার জন্য প্রশিক্ষণ নিচ্ছে।

ভারতীয় নৌবাহিনী প্রধান জানান, ২৬/১১ হামলার পর উপকূলীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা গড়ে তোলা হয়েছে এবং সমুদ্রসীমার নিরাপত্তার দায়িত্ব পুরোপুরি নৌবাহিনীর হাতে রয়েছে। তিনি বলেন, কোস্টগার্ড, সমুদ্রসীমা পুলিশ, রাজ্য সরকার ও সংশ্লিষ্টদের নিয়ে নৌবাহিনী যে কোনও ধরনের অনুপ্রবেশ প্রতিহত করবে।

নৌবাহিনী প্রধানের এই তথ্য জানানোর কয়েকদিন পরেই পাকিস্তানে প্রশিক্ষিত কমান্ডোদের ডুবে পথে হামলার আশঙ্কায় ভারতের প্রধান দুটি বন্দরে সতর্কতা জারি করা হয়। কোস্টগার্ড ও গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের তথ্যের ভিত্তিতে এই সতর্কতা জারি করা হয় বলে জানায় কর্তৃপক্ষ।

সতর্ক বার্তায় আদানি বন্দর ও বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল লিমিটেড কর্তৃক পরিচালিত মুন্দ্রা বন্দর এবং রাষ্ট্রীয় পরিচারিত কান্দলা বন্দরের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও জাহাজ অপরাটেরদের সজাগ থাকতে বলা হয়েছে। কর্মকর্তারা আশঙ্কা করছিলেন, পাকিস্তানে প্রশিক্ষিত কমান্ডোরা কুচ উপসাগরে প্রবেশ করেছে।

 

/এএ/

লাইভ

টপ