ভারতীয় রীতি অনুসরণ করায় যুক্তরাষ্ট্রের চন্দ্র অভিযান সফল!

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৪:১৭, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৯:০৭, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৯

৩৮ বার ব্যর্থ হওয়ার পর ভারতীয় রীতি অনুসরণ করে উৎক্ষেপণ করায় যুক্তরাষ্ট্র ৩৯তম বারে গিয়ে তাদের চন্দ্র অভিযানে সফলতা পেয়েছিল; দাবি করেছেন ভারতের এক কট্টর হিন্দুত্ববাদী নেতা। দেশটির ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) মতাদর্শিক সংগঠন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের (আরএসএস) সাবেক কর্মী সামভাজি ভিদে এই দাবি করেছেন। সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, এর আগেও বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন মহারাষ্ট্রের শিব প্রতিষ্ঠান হিন্দুস্তান নামের একটি সংগঠনের প্রধান ভিদে।

ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাবেক আরএসএস কর্মী সামভাজি ভিদে

সম্প্রতি চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে চন্দ্রযান-২ পাঠায় ভারত। শুক্রবার (৬ সেপ্টম্বর) স্থানীয় সময় রাত ১টা ৫৫ মিনিটে চাঁদের পিঠে অবতরণের কথা ছিল এই মহাকাশযানটির বিক্রম নামের ল্যান্ডার অংশটির। কিন্তু শেষ মুহূর্তে নিয়ন্ত্রণকক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে এটি। পরে ভারতীয় বিজ্ঞানীরা বিজ্ঞানীরা দাবি করেছেন, চন্দ্রযান-২ এর ল্যান্ডার বিক্রম চাঁদের মাটিতে আছড়ে পড়েছে।

চাঁদে ভারতের অভিযান নিয়ে আলোচনার মধ্যে সোমবার মহারাষ্ট্রের সোলাপুরে এক অনুষ্ঠানে সাবেক আরএসএস কর্মী সামভাজি ভিদে যুক্তরাষ্ট্রের চাঁদে অবতরণের সফলতার প্রসঙ্গ তুলে ধরেন। কট্টর হিন্দুত্ববাদী এই নেতা বলেন, ‘আমেরিকা আগে ৩৮ বার চাঁদের মাটিতে মহাকাশযান পাঠানোর চেষ্টা চালালেও প্রতিবারই ব্যর্থ হয় তারা’। তিনি বলেন, বারবার এই ব্যর্থতার পর এক আমেরিকান বিজ্ঞানী সময় গণনায় নিজেদের অনুসরণ করা রীতির বদলে ভারতীয় রীতি অনুসরণের পরামর্শ দেন। ভিদে বলেন, ‘সবাইকে অবাক করে ভারতীয় সময় গণনার রীতি অনুসরণ করে ৩৯তম বার মহাকাশযান উৎক্ষেপণ করে চাঁদে পাঠাতে সক্ষম হয় আমেরিকা। তারা সফল হয়েছিল কারণ মহাকাশযানটি একাদশীর দিনে উৎক্ষেপণ করা হয়েছিল’।

হিন্দু ক্যালেন্ডার অনুযায়ী প্রতিমাসে চাঁদ দুটি পক্ষ অতিক্রম করে। এর একটি শুক্ল পক্ষ (এই সময়ে চাঁদ ক্রমান্বয়ে উজ্জ্বল হতে থাকে) ও অপরটি কৃষ্ণ পক্ষ (এই সময়ে ধীরে ধীরে চাঁদ ডুবে যেতে থাকে বা অন্ধকারে নিমজ্জিত হতে থাকে)। প্রতিটি পক্ষের এগারোতম দিনটিকে একাদশী নামে ডাকা হয়। এদিনটিকে আধ্যাত্মিক দিন হিসেবে বিবেচনা করে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা। অনেকেই এদিন আংশিক উপবাস পালন করে থাকেন। আর এমন দিনে মহাকাশযান পাঠানোয় যুক্তরাষ্ট্র চাঁদে অবতরণে সফলতা পেয়েছে বলে মনে করেন ভিদে।

অবশ্য সাবেক এই আরএসএস কর্মী আগেও বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন। এনডিটিভি জানিয়েছে এক সময়ে তিনি দাবি করেছিলেন তার বাগানের আম খাওয়ার পর অনেক দম্পত্তি পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছে। নাশিকে তিনি বলেছিলেন, ‘আম শক্তিশালী ও পুষ্টিকর। আমার বাগানের আম খেয়ে বেশ কিছু নারী পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছে’। এছাড়াও ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে সংঘটিত কোরেগাঁও-ভিম সহিংসতায় জড়িত থাকার অভিযোগ আছে তার বিরুদ্ধে।

/জেজে/বিএ/

লাইভ

টপ