অ্যামাজনে উন্নয়ন পরিকল্পনায় সম্মত ব্রাজিল ও যুক্তরাষ্ট্র

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১০:৪৮, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫২, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৯

পৃথিবীর ফুসফুস খ্যাত অ্যামাজন বনাঞ্চলে ব্যক্তিখাতের উন্নয়ন পরিকল্পনায় উৎসাহ দেওয়ার বিষয়ে সম্মত হয়েছে ব্রাজিল ও যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার ওয়াশিংটনে এক বৈঠকে এই ঐক্যমত প্রতিষ্ঠিত হয়। ব্যক্তিখাতের নেতৃত্বে অ্যামাজনের জীববৈচিত্র রক্ষায় ১০ কোটি ডলার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তারা। ব্রাজিলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আর্নেস্তো আরাওজো বলেন, এই রেইনফরেস্ট রক্ষার একমাত্র উপায় অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য তা উন্মুক্ত করে দেওয়া। অ্যামাজনে সাম্প্রতিক অগ্নিকাণ্ড নিয়ন্ত্রণে ব্রাজিলের ব্যর্থতার সমালোচনার নিন্দাও জানান তিনি।

গত মাসে ব্রাজিলের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর স্পেস রিসার্স জানিয়েছে, ২০১৯ সালে এ পর্যন্ত প্রায় ৭৪ হাজার দফায় অগ্নিকাণ্ডের শিকার হয়েছে এ বনভূমি। আগের যে কোনও সময়ের চেয়ে এবারের আগুন সবচেয়ে ভয়াবহ। এ আগুন ছড়িয়ে পড়ার ঘটনায় ব্রাজিলের উগ্র ডানপন্থী ও বাণিজ্যপন্থী প্রেসিডেন্ট জেইর বলসোনারো-র নীতিকে দায়ী করছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়। বন পুড়িয়ে বাণিজ্য সম্প্রসারণের নীতির জন্য নিজ দেশের পরিবেশবাদীদের কাছেও তোপের মুখে পড়েন তিনি। সর্বশেষ আগুন নিয়ন্ত্রণে ব্রাজিল সরকারের নিষ্ক্রিয়তায় দেশটির সঙ্গে বাণিজ্য চুক্তি বাতিলের হুমকি দেয় ইউরোপীয় ইউনিয়ন। ব্রাজিলিয়ান অর্থনীতিকে লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করে বেশ কয়েকটি ইউরোপীয় দেশ।

শুক্রবার ওয়াশিংটনে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এর সঙ্গে বৈঠকের পর ব্রাজিলের বনমন্ত্রী আর্নেস্তো আরাওজো সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘অ্যামাজন অঞ্চলে উন্নয়নের উদ্যোগে আমরা একত্রিত হতে চাই। আমরা বিশ্বাস করি বন রক্ষায় এটাই একমাত্র পথ। সেকারণে আমাদের নতুন উদ্যোগ দরকার, নতুন উৎপাদনমুখী উদ্যোগ দরকার, যাতে কর্মসংস্থান তৈরি হবে, অ্যামাজনের বাসিন্দাদের জন্য রাজস্ব আহরিত হবে। আর সেসব কারণেই যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আমাদের সহযোগিতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ’। তিনি বলেন, ব্রাজিল অ্যামাজনে সৃষ্ট চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সক্ষম নয় বলে দাবি করা হচ্ছে তা মিথ্যা।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেন জীববৈচিত্র তহবিলের মাধ্যমে অ্যামাজনের যেসব এলাকা এখনও দুর্গম সেখানে ব্যবসায়ে সহায়তা করা হবে। তিনি বলেন, গত মার্চে আমাদের প্রেসিডেন্টরা যেসব বিষয়ে একমত হয়েছিলেন তা অনুসরণ করবে ব্রাজিল ও আমেরিকার দল। আমার ১০ কোটি ডলার ছাড় করতে যাচ্ছি যা ১১ বছর অ্যামাজনে জীববৈচিত্র তহবিল রক্ষায় প্রভাব ফেলবে আর এই প্রজেক্টের নেতৃত্ব দেবে ব্যক্তিখাত।

শুক্রবার ব্রাজিল থেকে গরুর মাংস ও সয়াবিন আমদানি নিষিদ্ধ করতে ইউরোপীয় দেশগুলোকে আহ্বান জানিয়েছে ফিনল্যান্ড। অ্যামাজনে আগুন নিয়ন্ত্রণে ব্রাজিলের ওপর চাপ সৃষ্টিতে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

/জেজে/

লাইভ

টপ