মোদির সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানালেন কাশ্মিরি পণ্ডিতরা

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২১:৫৩, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:০৮, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯

বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে কাশ্মিরকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করায় যুক্তরাষ্ট্র সফররত ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে স্বাগত জানিয়েছে প্রবাসী কাশ্মিরি পণ্ডিতদের এক সংগঠন। ‘গ্লোবাল কাশ্মিরি পণ্ডিত ডায়াসপোরা’ নামের ওই সংগঠনের এক প্রতিনিধি দল মোদির সঙ্গে দেখা করে তার সিদ্ধান্তের জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এই মুহূর্তে টেক্সাস অঙ্গরাজ্যে অবস্থান করছেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী। সেখানকার হাউস্টনে হাউডি মোদি (কেমন আছেন, মোদি) অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছেন তিনি।

২০১৯ সালের ৫ আগস্ট ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের মধ্য দিয়ে কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসনের অধিকার ও বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নেয় বিজেপি নেতৃত্বাধীন দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার। এই পদক্ষেপকে ঘিরে কাশ্মিরজুড়ে মোতায়েন করা হয়েছে বিপুলসংখ্যক অতিরিক্ত সেনা। জারি করা হয়েছে বিধিনিষেধ। ৩৯ দিন পর সম্প্রতি কারফিউ তুলে নিলেও থমথমে পরিস্থিতি যায়নি কাশ্মিরের। এখনও আটক রয়েছেন সেখানকার শত শত নেতাকর্মী।  তবে মোদি সরকারের দাবি, উন্মুক্ত কাশ্মির গড়তে এবং সেখানকার উন্নয়নের জন্য ওই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

হাউস্টনে মোদি বলেন, ‘সবার জন্য নতুন কাশ্মির  গড়বো।’ সে সময় জম্মু ও কাশ্মিরের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল ও বিশেষ মর্যাদা বিলুপ্তির পদক্ষেপের জন্য ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীকে  কৃতজ্ঞতা জানিয়েছে পণ্ডিতদের ওই প্রতিনিধি দল। তারা মোদিকে বলেন ‘কাশ্মির মে নয়ে হাওয়া বহি রাহি হ্যায় অর্থাৎ কাশ্মিরে নতুন বাতাস বইছে’।

উল্লেখ্য, কাশ্মিরের পণ্ডিতদের স্থানীয় সংগঠন এক জরিপের তথ্য অনুযায়ী, ১৯৯০ সাল থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত সেখানে সংখ্যালঘু নিধনযজ্ঞের বলি হয়েছেন ৩৯৯ জন কাশ্মিরি পণ্ডিত। ২০১৬ সালের জুলাইয়ে প্রকাশিত পাকিস্তানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডন নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৯৯০ থেকে এ পর্যন্ত কাশ্মির ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন ৭ থেকে ৮ লাখ পণ্ডিত। ভারতীয় কর্তৃপক্ষ অভিযোগ করে থাকে, কাশ্মিরের স্বাধীনতার দাবিতে সশস্ত্র প্রতিরোধ আন্দোলনে জড়িত সংগঠন হিজবুল মুজাহিদিনের কারণেই ভিটেমাটি ছেড়েছিলেন ওই পণ্ডিতেরা। তবে হিজবুল এই অভিযোগ স্বীকার করে না। 

প্রধানমন্ত্রী মোদির টুইটার অ্যাকাউন্টে প্রকাশিত একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, প্রতিনিধিদের এক সদস্য কৃতজ্ঞতাস্বরূপ প্রধানমন্ত্রীর হাতে চুম্বন করছেন। প্রতিনিধি দলের সদস্য রাজীব পণ্ডিত বলেছেন, ‘মোদি একটি নতুন কাশ্মিরের প্রতিশ্রুতি দিয়ে আমাদের প্রতিনিধিদের মুখে হাসি এনেছেন।’

জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগ দিতে যুক্তরাষ্ট্র সফরে গেছেন মোদি। আজ (রবিবার) তিনি টেক্সাস ইন্ডিয়া ফোরাম আয়োজিত ‘হাউডি, মোদি’ (কেমন আছেন, মোদি) অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছেন। এক সপ্তাহের সফরে তিনি বেশ কয়েকটি দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করবেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গেও বৈঠক করার কথা রয়েছে তার।

 

/এইচকে/বিএ/

লাইভ

টপ