সিরিয়ায় তুর্কি অভিযান বন্ধের আহ্বান ইরানের

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০২:৫০, অক্টোবর ১১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:৫৩, অক্টোবর ১১, ২০১৯

সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে তুরস্কের সামরিক বাহিনীর অভিযান দ্রুত বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে ইরান। পাশাপাশি সিরিয়া থেকে তুরস্কের সেনা প্রত্যাহার করারও কথা বলেছে তারা। বৃহস্পতিবার(১০ অক্টোবর) ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে ওই আহ্বান জানানো হয়।

সোমবার সিরিয়ায় আইএসবিরোধী অভিযান চালানোর ঘোষণা দেয় তুরস্ক। বুধবার সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে তুরস্ক ‘পিস স্প্রিং অপারেশন’ শুরু করে। অভিযানের অংশ হিসেবে তুরস্ক সমর্থিত সিরিয়ান ন্যাশনাল আর্মি ইউফ্রেতাসের পূর্ব দিকে প্রবেশ করে। তুর্কি অভিযানে সহযোগিতার জন্য তারা অগ্রসর হচ্ছে। কুর্দি নিয়ন্ত্রিত সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে অভিযানের দ্বিতীয় দিনে বিমান হামলা ও স্থল অভিযান জোরালো করেছে তুরস্ক।  এতে শতাধিক ‘জঙ্গি’ নিহত হয়েছে বলে দাবি তুর্কি প্রধানমন্ত্রীর। দেশটির সেনাবাহিনী জানিয়েছে, তারা বেশ কিছু লক্ষ্যবস্তু দখল করেছে। এছাড়া সীমান্তের কেন্দ্রীয় অঞ্চলে তুমুল লড়াই চলছে।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওই  বিবৃতিতে তুর্কি অভিযানের বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে জানিয়েছে, চলমান এ অভিযানে সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে বহু বেসামরিক নাগরিক জীবন-মৃত্যুর ঝুঁকির মুখে রয়েছে। যে এলাকায় অভিযান চালাচ্ছে সেখানকার সাধারণ মানুষ মারাত্মক ধরনের মানবিক বিপর্যয় ও আসন্ন বিপদের মুখে রয়েছে। ফলে সেখানে এখনই সামরিক অভিযান বন্ধ করা প্রয়োজন এবং সেখান থেকে তুর্কি সেনাদেরকে সরিয়ে নিতে হবে।

কুর্দি গেরিলা গোষ্ঠী পিপলস প্রোটেকশন ইউনিট বা ওয়াইপিজি’র ব্যাপারে তুরস্কের উদ্বেগের কথা বিবেচনায় নিয়েও ইরান মনে করে সামরিক অভিযানের মধ্যদিয়ে এর সমাধান হবে না, এতে বরং সাধারণ মানুষের জীবন এবং সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি হবে।

মধ্যপ্রাচ্য অঞ্চলের চলমান গোলযোগপূর্ণ অবস্থার কথা উল্লেখ করে ইরানি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, এই অবস্থার জন্য প্রধানত বাইরের বিশেষ করে আমেরিকার হস্তক্ষেপ দায়ী।

/এইচকে/

লাইভ

টপ