অচিরেই চীন-যুক্তরাষ্ট্র বাণিজ্য যুদ্ধের অবসান?

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৪:৩৮, অক্টোবর ১৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:৪৪, অক্টোবর ১৭, ২০১৯

চীন-যুক্তরাষ্ট্র বাণিজ্য যুদ্ধের অবসানে শিগগিরই পর্যায়ক্রমিক বাণিজ্য চুক্তিতে পৌঁছানো যাবে বলে আশা প্রকাশ করেছে বেইজিং। বৃহস্পতিবার দেশটির বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সম্ভাব্য দ্রুততর সময়ের মধ্যে দুই দেশ পরস্পরের ওপর আরোপিত শুল্ক প্রত্যাহার করবে। 'বাণিজ্য যুদ্ধে কোনও পক্ষই জয়ী হয় না' বলে উল্লেখ করা হয়েছে ওই বিবৃতিতে। 

চীনের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জাও ফেং

চীনের সঙ্গে বিপুল বাণিজ্য ঘাটতি কমিয়ে আনার লক্ষ্য নিয়ে গত বছর থেকে বেইজিংয়ের রফতানি পণ্যের ওপর অতিরিক্ত শুল্ক আরোপ শুরু করে ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন। ‘মেক আমেরিকা গ্রেট এগেইন’ আর ‘আমেরিকা ফার্স্ট’ নামের কথিত সংরক্ষণশীল নীতির ঘোষণা দিয়ে ক্ষমতায় আসা ট্রাম্প প্রশাসনের এই পদক্ষেপের বিরুদ্ধে পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে বেইজিংও মার্কিন পণ্যের ওপর অতিরিক্ত শুল্ক আরোপ শুরু করে। এই বাণিজ্য যুদ্ধ নিরসনে চলতি বছরের মে মাসে ওয়াশিংটন-বেইজিং আলোচনায় বসলেও কোনও চুক্তি ছাড়াই তা শেষ হয়। বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের রাজস্বমন্ত্রী স্টিভেন ম্নুচিন বলেন, আগামী মাসে দুই দেশের প্রেসিডেন্টের মধ্যে প্রথম ধাপের চুক্তি স্বাক্ষরের জন্য খসড়া চূড়ান্ত করতে দুই দেশের বাণিজ্য প্রতিনিধিরা কাজ করছেন।

যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে চলমান বাণিজ্য যুদ্ধ নিরসনে সম্প্রতি আবারও ওয়াশিংটনে আলোচনায় বসে দুই দেশের প্রতিনিধিরা। প্রথম দিনের আলোচনা শেষে গত ১১ অক্টোবর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আশা প্রকাশ করেন, অচিরেই দুই দেশের মধ্যে প্রথম পর্যায়ের চুক্তি স্বাক্ষরিত হবে। সে সময় নতুন করে শুল্ক আরোপ স্থগিত করেন তিনি। তবে বৈঠকের পর দুই দেশের কর্মকর্তারাই বলেন, চুক্তিতে পৌঁছাতে আরও অনেক পদক্ষেপ নিতে হবে। বৃহস্পতিবার চীনের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জাও ফেং সাংবাদিকদের বলেন, পর্যায়ক্রমিক চুক্তি বাজারের আত্মবিশ্বাস বাড়াবে আর অনির্দিষ্টতা কমাবে। দুই পক্ষই পরস্পরের মধ্যে নিবিড় যোগাযোগ রাখছে বলে জানান তিনি।

/জেজে/বিএ/

লাইভ

টপ