কার্বন নিঃসরণ না কমালে জরিমানা গুনতে হবে নিউ জিল্যান্ডের কৃষকদের

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৩:৪৯, অক্টোবর ২৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:০৫, অক্টোবর ২৪, ২০১৯

নিউ জিল্যান্ডের কৃষকদের কার্বন নিঃসরণ কমিয়ে আনতে পাঁচ বছর সময় দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন। তিনি ঘোষণা দিয়েছেন, পাঁচ বছর যারা কার্বন নিঃসরণ কমাবে না তাদেরকে আর্থিক জরিমানার দণ্ড দেওয়া হবে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান এখবর জানিয়েছে।

জাসিন্ডার লেবার জোট সরকার নিউ জিল্যান্ডকে ২০৫০ সালের মধ্যে কার্বন নিঃসরণমুক্ত করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলার জন্য আন্দোলনকে তিনি আগের প্রজন্মের পারমাণবিক শক্তির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের সঙ্গে তুলনা করেন।

নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুসারে, নির্দিষ্ট পরিমাণ নিঃসরণ কমানো না হলে ২০২২ সালের শুরু থেকে কৃষকদের অতিরিক্ত কর বহন করতে হবে।

দেশটির লেবার সরকার ও কৃষকদের মধ্যে টানাপড়েন দীর্ঘদিন ধরেই চলছে। বিশেষ করে ডেইরি খাতকে সরকার আরও বেশি পরিবেশবান্ধব করতে চাইছে। তবে এই খাতের সংশ্লিষ্টদের দাবি, পরিবেশগতভাবে টেকসই হওয়া তাদের জন্য অর্থনৈতিভাবে কার্যকর না।  কার্বন নিঃসরণ সংস্কার পরিকল্পনা ও পানিপথ পরিষ্কার কার্যক্রম অনেক কৃষক সন্তুষ্ট না।

কিন্তু আরডার্ন জানান, তিনি কৃষকদের কথা শুনেছেন এবং তাদেরকে খামারভিত্তিক সংস্কারের জন্য সময় দিতে রাজি আছেন। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই রাজনীতিবিদরা দায় এড়িয়ে গেছেন এবং যখন জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় স্পষ্ট পদক্ষেপ প্রয়োজন তখন তারা সবার জন্য অস্পষ্টতা রেখেছেন।

নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, এই পরিকল্পনায় নিশ্চিতভাবে কার্বন নিঃসরণ কমিয়ে আনবে। কৃষকদের এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের স্বাধীনতা দেওয়া হবে। যারা এটি করতে পারবে তাদের পুরস্কৃত করা হবে।

বৃহস্পতিবার আরডার্ন জানান, কৃসকদের ইটিএস নামের একটি প্রকল্পে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। সমালোচকরা বলছেন, শক্তিশালী শিল্প খাতের চাপে এক্ষেত্রে নমনীয় হতে বাধ্য হয়েছেন তিনি।

/এএ/

লাইভ

টপ