Vision  ad on bangla Tribune

এক হোটেলে জিম্মিদশার অবসান, আরেকটি হোটেলে হামলার খবর

বিদেশ ডেস্ক১৫:৪৫, জানুয়ারি ১৬, ২০১৬





বুরকিনা ফাসোর হোটেলে অভিযানরত নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যবেশ কয়েক ঘণ্টার শ্বাসরুদ্ধকর অভিযান আর বন্দুকযুদ্ধের পর অবশেষে বুরকিনা ফাসোর স্প্লেনডিড হোটেলে জিম্মিদশার অবসান হয়েছে বলে ঘোষণা দিলো দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী। তবে নতুন করে পার্শ্ববর্তী আরেকটি হোটেলে হামলার খবর জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো।
বুরকিনা ফাসোর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বরাতে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা জানায়, অভিযানের মধ্য দিয়ে ১২৬ জন জিম্মিকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। পাশ্ববর্তী আরেকটি হোটেলে নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযান চলছে বলেও জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন তিন হামলাকারী।
শুক্রবার রাতে ওই হামলার ঘটনায় এখন পর্যন্ত অন্তত ২০ জনের প্রাণহানির খবর নিশ্চিত করেছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৪০ জন।
শুক্রবার রাতে বুরকিনা ফাসোর ওয়াগাডিউগিউয়ের স্প্লেনডিড হোটেলে হামলা চালিয়ে সেখানে অবস্থানরতদের জিম্মি করে রাখে বন্দুকধারীরা। দেশটির আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছেই অবস্থিত এই হোটেলটিতে জাতিসংঘের কর্মকর্তারা এবং বিদেশি নাগরিকরা অবস্থান করে থাকেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মুখোশ পরা কয়েকজন মানুষ হোটেলের বাইরে একটি গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দিয়ে এবং ফাঁকা গুলি ছুড়তে ছুড়তে হোটেলে ঢুকে পড়ে। রাতভর জিম্মিদশার পর শনিবার সকালে হোটেলটিতে অভিযান শুরু করে নিরাপত্তা বাহিনী।


আলকায়েদা সংশ্লিষ্ট সশস্ত্র গোষ্ঠী একিউআইএম হামলার দায় স্বীকার করেছে বলে দাবি করেছে জিহাদি সংগঠনগুলোর কর্মকাণ্ড পর্যবেক্ষণকারী যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংস্থা সাইট ইনটেলিজেন্স গ্রুপ।
উল্লেখ্য, আফ্রিকার দেশ বুরকিনা ফাসোর রাজধানীতে এটিই প্রথম কোনও জঙ্গি হামলা। এর আগে গত নভেম্বরে মালির একটি হোটেলে জঙ্গি হামলার ঘটনায় ২০ জন নিহত হয়েছিলেন। সেই সময়ও হামলার দায় স্বীকার করে একিউআইএমসহ দুটি সশস্ত্র গোষ্ঠী। সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান, আলজাজিরা

/এফইউ/বিএ/

লাইভ

টপ