পুলিশি তদন্তের ইঙ্গিত রোহিত ‘দলিত’ নয়: নেপথ্যে কী?

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:১৩, জানুয়ারি ২৩, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:১৩, জানুয়ারি ২৩, ২০১৬

রোহিতকে শিক্ষার্থীদের শ্রদ্ধা নিবেদনভারতের হায়দ্রাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৬ বছর বয়সী আত্মহত্যাকারী শিক্ষার্থী রোহিত দলিত ছিলেন কিনা; মৃত্যু রহস্যকে ছাপিয়ে সেই আলোচনা প্রবল হয়ে উঠেছে। পুলিশি তদন্ত বলছে, রোহিত দলিত নন। অন্যদিকে পরিবার ও বন্ধু-স্বজনদের দাবি রোহিতের মা দলিত সম্প্রদায়ের এবং রোহিত সে পরিচয়ই ব্যবহার করতেন। কিন্তু রহিত দলিত কিনা, সেই প্রশ্ন মুখ্য হয়ে উঠছে কেন?
শনিবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়, রোহিতের গ্রামের বাড়ি গুন্টুরে গিয়ে তদন্ত চালায় পুলিশ। তদন্তে দেখা যায়, রোহিতের মা-বাবা দুজনই ভাদেরা সম্প্রদায়ের। ভাদেরা নিম্ন বর্ণ হলেও দলিত নয়। পুলিশের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা ইকোনমিক টাইমসকে জানান, রোহিতের বাবা-মা দলিত সম্প্রদায়ের না হলেও তারা মালা জনগোষ্ঠীর অন্তর্ভূক্ত দেখিয়ে একটি সনদ যোগাড় করেছেন। রোহিতের মা-বাবা কীভাবে সে সনদ যোগাড় করলেন সে ব্যাপারে তদন্ত চলছে বলে জানান ওই কর্মকর্তা।
রোহিতের আত্মহত্যার ঘটনায় শিডিউলড কাস্ট অ্যাট্রোসিটিজ অ্যাক্টের আওতায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বন্দারু, বিজেপির এমএলসি রামচন্দ্র এবং হায়েদ্রাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি আপ্পা রাওয়ের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ বলছে, রোহিত যে দলিত নন তা চূড়ান্তভাবে প্রমাণ করা গেলে শিডিউলড কাস্ট অ্যাট্রোসিটিজ অ্যাক্টের আওতায় চলমান মামলাটি হালে পানি পাবে না। শিডিউলড কাস্ট অ্যাট্রোসিটিজ অ্যাক্টের আওতায় মামলাটি দায়ের হওয়ায় রোহিত দলিত না হলে মামলা থেকে অব্যাহতি পেরে পারেন অভিযুক্তরা।

রোহিতের মৃত্যুর জন্য দায়ীদের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ

তবে কি অভিযুক্তদের বাঁচাতেই রহিতকে ‘দলিত’ না প্রমাণ করার চেষ্টা? সেই প্রশ্ন এখন রোহিতের স্বজন এবং বন্ধুদের মধ্যে। প্রশ্নকে আরও জোরালো করেছে পুলিশের এক মন্তব্য। ইকোনমিক টাইমসকে পুলিশ জানিয়েছে,  রোহিত দলিত কিনা ‘কয়েকজনের’ অনুরোধে তারা এ নিয়ে খোঁজখবর শুরু করেছেন। কিন্তু সেই ‘কয়েকজন’ কারা তা বলতে রাজি হয়নি পুলিশ।

অবশ্য বন্ধুদের দাবি, রোহিতকে দলিত নয় প্রমাণ করে আদতে মামলা থেকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসহ অভিযুক্তদের খালাস দেওয়া সম্ভব হবে না। তাদের দাবি, রোহিত সবার কাছে দলিত হিসেবেই পরিচিত ছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষও তাকে দলিত হিসেবেই বিবেচনা করতো। সুতরাং মামলার মোড় ঘোরানোর সুযোগ নেই।

রোহিত কি সত্যি দলিত নন? এমন প্রশ্নের উত্তর জানতে বার বার তার পরিবার আর বন্ধুদের শরণাপন্ন হচ্ছেন সাংবাদিকরা। তবে নিজেদের আবারও দলিত বলে দাবি করেছেন রোহিতের ভাই রাজা চৈতন্য। রোহিতের পরিবারের তরফে যে সনদটি উপস্থাপন করা হয়েছে তাতে দেখা যায় অন্ধ্র প্রদেশ সরকার তাকে মালা (পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠী বা শিডিউলড কাস্ট) সম্প্রদায়ের বলে স্বীকৃতি দিয়েছে।

রোহিতের জন্ম সনদ

দ্য নিউজ মিনিটকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রোহিতের মা রাধিকা জানান, তিনি মালা সম্প্রদায়ের এবং রোহিতের বাবা ভাদেরা সম্প্রদায়ের অন্তর্ভূক্ত। রাধিকা বলেন, ‘তৃতীয় সন্তান গর্ভে থাকার সময় আমার স্বামী আমাকে ফেলে চলে যান। পরে আমার সন্তানরা তাদের বাবাকে স্বীকৃতি দেয়নি। সে হিসেবে আমি মালা সম্প্রদায়ের এবং আমার সন্তানরাও মালা।’

এদিকে রোহিতের মৃত্যু নিয়ে গুরুত্ব সহকারে তদন্ত চলছে না বলে অভিযোগ করেছেন কংগ্রেসের মুখপাত্র মধু ইয়াশকি। এ ব্যাপারে পুলিশের তদন্তের ওপর আস্থা নেই বলেও জানান তিনি।

রবিবার (১৭ জানুয়ারি) রাতে হায়েদ্রাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের বহিষ্কৃত ছাত্র রোহিত ভেমুলা ছাত্রাবাসের কক্ষে গলায় ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেন। আত্মহননের আগে একটি নোট লিখে যান রোহিত। তাতে তিনি লেখেন, ‘আমার আত্মহত্যার জন্য কারও কোনও দায় নেই। কেউ আমাকে উস্কানি দেয়নি। কারও কথা বা কাজের প্রেক্ষিতেও আমি এই সিদ্ধান্ত নিইনি। এই সিদ্ধান্ত একান্তই আমার নিজের এবং আমি নিজেই এর জন্য দায়ী। দয়া করে আমার মৃত্যুর পর আমার বন্ধু ও শত্রুদের কোন বিপদে ফেলবেন না। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া, দ্য নিউজ মিনিট

/এফইউ/বিএ/

লাইভ

টপ