জিকা ভাইরাসকরণীয় নির্ধারণে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার জরুরি বৈঠক

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:৪৩, ফেব্রুয়ারি ০১, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৪৩, ফেব্রুয়ারি ০১, ২০১৬

জিকা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমাগত বৃদ্ধি পাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জরুরি বৈঠকে বসছে। সোমবারের বৈঠকে জিকা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয় ঠিক করতে আলোচনা হবে বলে জানা গেছে। জিকা ভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর পদক্ষেপ নিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা দেরি করেছে- এমন সমালোচনার পর এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।
দ্য গার্ডিয়ানের খবরে বলা হয়েছে, বৈঠকে মশাবাহিত জিকা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে আন্তর্জাতিক জরুরি অবস্থা জারি ও সমন্বিত বৈশ্বিক পদপেক্ষ নেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হতে পারে।
বৃহস্পতিবার জেনেভায় বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক ড. মার্গারেট চ্যান জানান, জিকা ভাইরাস হালকা হুমকি থেকে বিপজ্জনক অবস্থায় চলে গেছে। জিকা প্রতিরোধের জন্য দ্রুত সমাধান খোঁজারও তাগিদ দিয়েছেন তিনি।
আমেরিকান দেশগুলোয় জিকা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ থেকে ৪০ লাখ হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন চ্যান। ব্রাজিলে প্রথম শনাক্ত হলেও ইউরোপ ও দক্ষিণ আমেরিকার ২১ টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাস। ব্রাজিলে এখনপর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার ৯০০ বলে ধারণা করা হচ্ছে। তাদের মধ্যে ৩০০ জনের সংক্রমণ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে। ব্রাজিল সরকার আক্রান্তের সংখ্যা নির্ণয়ে জরিপ চালাতে ২ লাখ সেনা ও ৩ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী নিয়োগ করেছে।

এদিকে এই ভাইরাসে কলম্বিয়ায় ২ হাজারেরও বেশি গর্ভবতী আক্রান্ত হয়ে পড়েছেন।দেশটির জাতীয় স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের দেওয়া তথ্য অনুসারে,কলম্বিয়া মোট ২০ হাজার ২৯৭ জন মানুষ জিকা ভাইরাসে আক্রান্ত। এদের মধ্যে ২ হাজার ১১৬ জন গর্ভবতী। এক সপ্তাহের ব্যবধানে এ সংখ্যা দ্বিগুন হয়েছে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

এই গ্রীষ্মে ব্রাজিলে অলিম্পিক প্রতিযোগিতা আয়োজন হওয়ার কথা রয়েছে। সে সময় প্রায় ৫০ লাখ লোক রিও ডি জেনিরো ভ্রমণ করবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। ব্রাজিলে জিকা ভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় অলিম্পিক নিয়েও উদ্বেগ বাড়ছে।

/এএ/বিএ/

লাইভ

টপ