সুগন্ধী ফুলে অন্ধ স্ত্রীর জীবনে পূর্ণতা দিলেন প্রেমান্ধ স্বামী

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:৪২, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৪৩, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৬

অন্ধ স্ত্রীকে মুগ্ধ করতে সুগন্ধী ফুলের চাষ করে বাড়ির চারপাশ ভরে ফেলেছেন ৮৬ বছর বয়সী এক বৃদ্ধ। ভালোবাসার এই অপূর্ব দৃষ্টান্ত জাপানের পর্যটকদের অন্যতম প্রধান আকর্ষণে পরিণত হয়েছে।

জাপানের মিয়াজাকি অঞ্চলের এক ছোট শহর শিনতোমি। সেখানেই বাস করেন তোশিউকি এবং ইয়াসুকো। দুই সন্তান আর গোয়াল ভরা ৬০টি গরুর খামারবাড়ি নিয়ে সুখেই জীবন কাটাচ্ছিলেন এই দম্পতি।

ইয়াসুকো ও তোশিউকি

কিন্তু ৩০ বছর বিবাহিত জীবন কাটানোর পর, যখন ইয়াসুকোর বয়স ৫২, তার দৃষ্টিশক্তি কমতে শুরু করে। হঠাৎ করেই ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়ে পুরোপুরি অন্ধ হয়ে যান তিনি। খামারের কাজ করতে অসমর্থ হয়ে পড়েন, জীবনের প্রতি সমস্ত আগ্রহও হারিয়ে ফেলেন একই সঙ্গে। এমনকি কারও সঙ্গে কথা বলা বা স্বাভবিক সব কাজ করাতেও অনীহা দেখা যায় তার মধ্যে।

ফুশিয়া ফুলে ছাওয়া খামারবাড়ি

সে সময় স্ত্রীকে জীবনে ফিরিয়ে আনতে অভূতপূর্ব এক পরিকল্পনা করেন তোশিউকি। নিজেদের বাগানেই ফুশিয়া নামের গোলাপি এক ফুলের সন্ধান পান তোশিউকি। তিনি টের পান, এই ফুল শুধু দেখতেই সুন্দর নয়, এতে রয়েছে অপূর্ব এক সৌরভ। তারপর থেকেই কাজে লেগে যান তোশিউকি। দুই বছর ধরে বাড়ি ও খামারের সর্বত্র ফুশিয়া ফুলের চাষ করেন এই বৃদ্ধ।

পর্যটকদের আকর্ষণ করছে এই ফুলের খামার

সুগন্ধী এই ফুলের আকর্ষণে আবারও জীবনের প্রতি আগ্রহ ফিরে পান তোশিউকির প্রিয়তমা স্ত্রী ইয়াসুকো। তিনি ঘর থেকে বের হয়ে আসেন, ঘুরে ফিরে বেড়ান বাড়ি আর খামারের আনাচে কানাচে।

শুধু তিনিই নন, প্রতি মার্চ এপ্রিলে এই খামারে ভিড় করেন শত শত পর্যটক। ফুলের সৌন্দর্যের পাশাপাশি তারা দেখতে পান প্রেমান্ধ এই বৃদ্ধ যুগলকেও। সূত্রঃ হাফিংটন পোস্ট

/ইউআর/বিএ/       

লাইভ

টপ