behind the news
Vision  ad on bangla Tribune

পুরুষের বন্ধ্যাত্বের জন্য দায়ী মোবাইল!

বিদেশ ডেস্ক১৮:৩৪, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৬

প্যান্টের পকেটে মোবাইল রাখা ক্ষতিকরবুক পকেটে বা প্যান্টের পকেটে যে মোবাইল রাখা ভালো নয় তা এত দিনে জানা হয়ে গেছে সবার। কিন্তু এতে  কতোটা ক্ষতি হয় সে সম্পর্কে অনেকেরই ধারণা নেই। সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের একদল গবেষক জানিয়েছেন, ৪৭ শতাংশ পুরুষদের বন্ধ্যাত্বের জন্য মোবাইল দায়ী। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম টেলিগ্রাফের এক খবরে একথা জানা গেছে।
গবেষকদের দাবি, প্যান্টের পকেটে অথবা এক বা দুই ফুটের মধ্যে মোবাইল রাখার ফলে পুরুষের শুক্রাণুর সংখ্যা কমে যায়। যার ফলে পুরুষের বন্ধ্যাত্ব দেখা যায়। পুরুষদের মোবাইলের প্রতি আকৃষ্ট হওয়া কমানোর উপদেশ দিয়েছেন তারা।
গবেষণা প্রতিবেদন অনুসারে,দিনে মাত্র ১ ঘণ্টা পকেটে মোবাইল রাখলেই ক্ষতি যা হওয়ার তা হয়ে যাবে। মোবাইল থেকে নির্গত রেডিয়েশনে পুরুষের শুক্রাণু ও অণ্ডকোষের ওপর বড় রকমের প্রভাব ফেলে। এতে শুক্রাণু প্রায় 'রান্না' হয়ে যায়। মাত্রাতিরিক্ত হারে শুক্রাণু কমিয়ে দেয়। যার কারণে ধীরে ধীরে বন্ধ্যাত্ব দেখা যায় পুরুষদের মধ্যে।
কারণ হিসেবে অধ্যাপক মার্থা ডার্নফেল্ড জানান, ফোন বেশিক্ষণ পকেটে রাখলে তা স্বাভাবিক কারণেই গরম হয়ে যায়। এটা একটা কারণ। এর সঙ্গে যুক্ত হয় মোবাইল থেকে নির্গত ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক তরঙ্গ। এই দুইয়ের প্রভাবে পুরুষদের মধ্যে বন্ধ্যাত্বের প্রবণতা বেশি দেখা যাচ্ছে।'

এর আগে একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছিল, যারা কোলের ওপর রেখে ল্যাপটপ নিয়ে কাজ করেন, তারাও বন্ধ্যাত্বের শিকার হচ্ছেন।

তবে মোবাইলের ক্ষেত্রে প্রভাব আরও ভয়ংকর। শুধু পকেটে নয়, শরীর থেকে ফুট খানেকের মধ্যে মোবাইল রাখলেও তার ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক তরঙ্গেহাত থেকে বাঁচা যায় না। অনেকে রাতেও মোবাইল মাথার পাশে বা পকেটে নিয়ে ঘুমোন। তাদের ক্ষেত্রে সমস্যা আরও বেশি হয়। নারীদের ক্ষেত্রে পুরুষদের মতো প্রভাব তেমন হয় না। এর প্রধান কারণ নারীরা মোবাইল সাধারণত ব্যাগের মধ্যেই রাখেন। সূত্র: দ্য টেলিগ্রাফ।

/এএ/

Global Brand  ad on Bangla Tribune

লাইভ

IPDC  ad on bangla Tribune
টপ