behind the news
Vision  ad on bangla Tribune

দাড়ি-গোঁফওয়ালা নারী মডেল হারনাম কৌড়!

বিদেশ ডেস্ক২১:১৪, মার্চ ০২, ২০১৬

র‌্যাম্পে হাঁটছেন তিনি। মাথায় শিখ পাগড়ি, পায়ে কালো বুট জুতা, পরনে নেভি ব্লু ড্রেস, গলায় ঝুলছে সোনার চেইন। সঙ্গে রয়েছে মুখভর্তি দাড়ি আর চিকন গোঁফ। চোখ বন্ধ করে যদি কল্পনা করেন তাহলে কী ভাসবে চোখে? একজন সুঠাম দেহের পুরুষের কথাই মনে পড়া স্বাভাবিক। তবে তিনি কোনও পুরুষ নন। তার নাম হারনাম কৌড়। তিনি একজন নারী মডেল। দাড়ি-গোঁফও কোনও মেকাপের কারসাজি না। এগুলো সত্যিকার দাড়ি ও গোফ।

ফ্যাশন শো’র র‌্যাম্পে হারনাম কৌড়

গত সপ্তাহে যুক্তরাজ্যের লন্ডনে রয়্যাল ফ্যাশন ডে একটি ফ্যাশন শোতে অংশ নেন হারনাম কৌড়। ওই শো’এর ছবি তিনি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন। সঙ্গে লিখেছেন তার জীবনের কিছু কথা। কিভাবে তিনি মডেল হয়ে উঠলেন। কী কষ্টকর পথ তাকে অতিক্রম করতে হয়েছে।

কৌড়ের গালে দাড়ি গজানোর বিষয়টি ধরা পড়ে যখন তার বয়স ১১। এ সময় তার পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম ধরা পড়ে। যা এক ধরনের হরমোনাল ডিজঅর্ডার। ওই সময় এ জন্য খুব লজ্জায় পড়তে হতো হারনামকে। বেশ কয়েক বছর নিজেকে কষ্ট দিয়ে অবশেষে হারনাম নিজের দাড়িকে পছন্দ করা শুরু করেন।

ইনস্টাগ্রামে হারনাম লিখেছেন, আমেরিকার শীর্ষ মডেলদের দেখে দেখে আমি বড় হয়েছি। টাইরা ব্যাঙ্কসের ভীষণ ভক্ত ছিলাম আমি। আমি সব সময় চাইতাম সুন্দর একজন মডেল হব। তাই আমি তাদের অনুকরণ করার চেষ্টা করতাম, তারা যেভাবে হাঁটত আমিও তা করার চেষ্টা করতাম। তবে সবাই আমাকে বলত- আমি মোটা, দেখতে খারাপ ও মডেল হওয়ার উপযুক্ত না। আমিও মডেলদের দিকে তাকিয়ে ভাবতাম- তারা যা করতে পারছে আমি কোনওদিন তা করতে পারব না। আমিও ভাবতে শুরু করি, মডেল হওয়ার মতো সুশ্রী, সুন্দরী আমি নই; এমনকি যে ধরনের শরীর দরকার তাও আমার নেই।

হারনাম জানান, যখন তিনি মডেল হওয়ার কথা বলতেন তখন লোকজন হাসত। তার পেট নিয়ে কৌতুক করত।

হারনাম নিজের সম্পর্কে আরও লিখেছেন, আমি আমার দাড়ি, বিষন্নতার চিহ্ন ও গায়ের দাগগুলোকে পছন্দ করি। এসব কিছুই আমাকে মনে করিয়ে কে আমি। এগুলোই আমাকে পূর্ণাঙ্গরূপে প্রকাশ করে। আমার দাড়ি আমার শরীরের একটি অংশে পরিণত হয়েছে। এটা আমার শক্তি ও আত্মবিশ্বাসের একটা অংশ। লোকজনের কাছে দাড়ি চুলের মতোই কিন্তু আমার কাছে তারচেয়ে অনেক বেশি। আমি চুল রাখি বিশ্বকে নারীর ভিন্নতা, আত্মবিশ্বাস, বৈচিত্র ও শক্তির রূপ দেখাতে। আমি আমার দাড়ি খুব পছন্ন করি এবং তা করে যাব।

গত বছরের নভেম্বর থেকে হারনাম শরীরের ইতিবাচকতা ও নিজেকে ভালোবাসার ক্যাম্পেইনের অন্যতম ব্যক্তিতে পরিণত হয়েছে। এ ক্যাম্পেইনটি পরিচালনা করছেন বিখ্যাত মডেল টেস হলিডে। ইন্টারনেটে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এ ক্যাম্পেইন চলছে। #EffYourBeautyStandards নামের ওই ক্যাম্পেইনে মানুষকে নিজেকে ভালোবাসতে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। সমাজ বা অন্যরা সুন্দরের যে সংজ্ঞা তৈরি করেছে তাতে কান না দিয়ে নিজেকে ভালোবাসতে।

এছাড়া হারনাম সম্প্রতি লন্ডনভিত্তিক শহুরে কনে ফটোগ্রাফিতে মডেল হয়েছে। এতে বেশ কয়েকটি ছবিতে ভিন্ন ভিন্ন সাজে কনে রূপে তাকে দেখা যায়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছবিগুলো প্রচার হওয়ার পর ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। সূত্র: হাফিংটন পোস্ট ইন্ডিয়া।
/এএ/

লাইভ

Nitol ad on bangla Tribune
টপ