রহস্যবৃত্তের রহস্য উন্মোচনে আলোর দিশা

Send
ফাহমিদা উর্ণি
প্রকাশিত : ২০:১৫, মার্চ ১৬, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:১৫, মার্চ ১৬, ২০১৬


অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে শনাক্ত হওয়া ফেয়ারি সার্কেল২০১৪ সালে ফেয়ারি সার্কেল নিয়ে ড. গেটজিনের প্রতিবেদন প্রকাশের আগ পর্যন্ত সে ধারণা নিয়েই ছিলেন বেল। গেটজিনের গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশের পর বেলের ধারণা হলো তার শনাক্তকৃত বৃত্তগুলোও একই ধরনের। এরপর গেটজিনের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন তিনি। বেলের সঙ্গে বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে ইমেইল চালাচালির পর গেটজিন অস্ট্রেলিয়ার ওই অঞ্চলটিতে যান যেখানে তাপমাত্রা ৪৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে ঘোরাঘুরি করে। দুই সপ্তাহ সেখানে কাটানোর পর কয়েক মাস ধরে গবেষণা প্রতিবেদন তৈরি করে গত সপ্তাহে তা প্রকাশ করা হয়। তবে গেটজিন মনে করেন, রহস্যবৃত্তকে ঘিরে থাকা রহস্যের সমাধান এখনও হয়নি। নতুন আবিষ্কৃত রহস্যবৃত্ত নিয়ে আরও গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে। সেইসঙ্গে নামিবিয়ান ফেয়ারি সার্কেল নিয়েও গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

ফেয়ারি সার্কেল নিয়ে প্রচলিত নানা তত্ত্ব

ফেয়ারি সার্কেল বা রহস্যবৃত্ত নিয়ে প্রচলিত আছে নানা মত। উইপোকার তত্ত্ব অনুযায়ী বলা হয়ে থাকে যে, পোকাগুলো স্বল্পজীবী উদ্ভিদের মূল খেয়ে ফেলে এবং সে জায়গাটুকু ফাঁকা হয়ে যায়। আর তা গোল গোল চক্রের মতো হয়ে পড়ে। এরপর সেখানে বৃষ্টির পানি জমা হয় এবং সে পানি ভূগর্ভে চলে যায়। এতে করে উইপোকা আর ঘাসের চক্রগুলো শুকনো মৌসুমেও বহাল থাকে।
বিভিন্ন তত্ত্বে আবার উট পাখি, বিষাক্ত উদ্ভিদ এবং গ্যাসকেও ফেয়ারি সার্কেলের উৎপত্তির কারণ হিসেবে হাজির করা হয়। এ ফেয়ারি সার্কেলগুলোকে স্থানীয় হিমবারা ঈশ্বরের পদচিহ্ন বলে মনে করেন। এমনও জনশ্রুতি আছে যে, প্রাগৈতিহাসিক কোনও ড্রাগনের বিষাক্ত নিঃশ্বাসের ফলাফল জমিগুলোর এই অনুর্বরতা! আর অতি সম্প্রতি ষড়যন্ত্র তাত্ত্বিকরা দাবি করেন যে ভীনগ্রহীদের বহনকারী যান ইউএফও’র অবতরণের কারণে ফেয়ারি সার্কেলের উৎপত্তি। সূত্র: বিবিসি, নিউ ইয়র্ক টাইমস

/এফইউ/বিএ/

লাইভ

টপ