ওবামাকে চিঠি লিখে যে জবাব পেলেন কিউবান নারী

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৫:৪৯, মার্চ ১৯, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:৪৯, মার্চ ১৯, ২০১৬

উল্লেখ্য ‘কমিউনিস্ট বিপ্লব’ এর পর ১৯৬০ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কিউবার কূটনৈতিক সম্পর্ক নষ্ট হয়ে যায়। যুক্তরাষ্ট্রের তরফে কিউবায় জারি করা হয় অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা। ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে এই সম্পর্ক স্বাভাবিক করার ঘোষণা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। পোপ ফ্রান্সিসের প্রত্যক্ষ উপস্থিতিতে এক বছরেরও বেশি সময় ধরে কানাডা এবং ভ্যাটিকানে গোপন বৈঠকের পর সম্পর্ক স্বাভাবিক হতে শুরু করে। ২০১৫ সালের আগস্টে হাভানায় নিজেদের দূতাবাস পুনরায় খুলে দেয় যুক্তরাষ্ট্র। কিউবার তরফে মার্কিন নাগরিকদের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়। অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা উঠে যাবার পাশাপাশি দু’দেশের টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থাও স্বাভাবিক হয়।

মার্চে ওবামার কিউবা ভ্রমণ করার কথা রয়েছে জানার পর ইয়ারযা ১৮ ফেব্রুয়ারি মার্কিন প্রেসিডেন্টকে চিঠিতে তার বাড়িতে কফিপানের আমন্ত্রণ জানান। চিঠিতে তিনি লিখেন, “আমি আপনার সঙ্গে সামনাসামনি দেখা করতে যতটুকু আগ্রহী কিউবায় তেমন কাউকে পাওয়া যাবে না।”  ইয়ারযাকে তার সমর্থনের জন্য চিঠিতে ধন্যবাদ জানান ওবামা। পাশাপাশি সরাসরি চিঠির এই যোগাযোগ ব্যবস্থা পুনর্স্থাপনের মধ্যদিয়ে দুই জাতি সম্পর্কের উজ্জ্বল নতুন অধ্যায়ে প্রবেশ করেছে বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়। সূত্র: বিবিসি

/বিএ/

লাইভ

টপ