আগস্ট নাগাদ সিরিয়ার নতুন সংবিধানের খসড়া চায় যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১০:০৪, মার্চ ২৫, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১০:০৪, মার্চ ২৫, ২০১৬

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি ও রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভআগস্টের মধ্যে সিরিয়ার জন্য নতুন একটি সংবিধানের খসড়া তৈরি করার ব্যাপারে একমত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া। ক্রেমলিনে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে চার ঘণ্টার বৈঠক শেষে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি এ সমঝোতার খবর দেন। সিরিয়ায় রাজনৈতিক পরিবর্তন আনার আলোচনা জোরালো করার জন্য দেশটির সরকার ও বিদ্রোহীদের চাপ দেওয়ার ব্যাপারেও একমত হন তারা।
সিরিয়া থেকে রুশ বাহিনীর একটি বিশাল অংশ প্রত্যাহার করে নেওয়ার ব্যাপারে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের ঘোষণার ১০ দিনের মাথায় ক্রেমলিন সফরে যান কেরি। বৃহস্পতিবার পুতিনের সঙ্গে আলোচনার পর রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে কেরি বলেন, ‘সিরিয়ায় রাজনৈতিক পরিবর্তন আনতে একটি রূপরেখা ও নতুন সংবিধানের খসড়া তৈরির ব্যাপারে আমাদের সমঝোতা হয়েছে। দুটি কাজই আমরা আগস্টের মধ্যে করব।’
তবে পুতিনের সঙ্গে আলোচনায় সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের ভবিষ্যৎ কী হবে তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে কিনা সে ব্যাপারে কিছু জানাননি কেরি।
এদিকে জেনেভায় সিরিয়ার সরকার ও বিদ্রোহীদের মধ্যকার আলোচনার অগ্রগতি সম্পর্কে বলতে গিয়ে বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের বিশেষ দূত স্টাফান দে মিস্তুরা জানান, ‘বেশ কিছু ইস্যুতে দু পক্ষের মতৈক্য হয়েছে।’ আগামী মাসে আবারও আলোচনা হবে বলে জানান তিনি।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ল্যাভরভ বলেন, সিরিয়ার সরকার কাঠামোতে পরিবর্তন আনার ইস্যুতে জেনেভায় সিরীয় সরকার ও বিদ্রোহীদের মধ্যে সরাসরি আলোচনার জন্য চাপ দেওয়া হবে।

জাতিসংঘের তথ্য মতে,সিরিয়ায় পাঁচ বছর ধরে চলা গৃহযুদ্ধে আড়াই লাখ মানুষের প্রাণহানি হয়েছে। এছাড়া নিজ আবাসস্থল ছেড়েছেন প্রায় ১ কোটি ২০ লাখ সিরীয়। সূত্র: বিবিসি

/এফইউ/

লাইভ

টপ