Vision  ad on bangla Tribune

মার্কিন আর্থিক প্রতিষ্ঠানে সাইবার হামলার দায়ে ৭ ইরানি অভিযুক্ত

বিদেশ ডেস্ক১০:৩৬, মার্চ ২৫, ২০১৬

অভিযুক্ত ইরানিদের ছবিমার্কিন আর্থিক প্রতিষ্ঠানে হ্যাকিংয়ের দায়ে সাত ইরানি নাগরিকের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র অভিযোগ গঠন করেছে। ২০১১ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত ব্যাংকসহ প্রায় ৫০টি আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং নিউ ইয়র্ক ড্যাম-এ সাইবার হামলার জন্য ঐ ব্যক্তিদের অভিযুক্ত করা হয়। দোষী সাব্যস্ত হলে তাদের ১০ বছর পর্যন্ত সাজা হতে পারে।
মাত্র আগের দিনই মার্কিন সেনাবাহিনীর গোপন তথ্য হ্যাক করার দায়ে একজন চীনা নাগরিককে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড এবং আড়াই লাখ ডলার জরিমানা করা হয়।
যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ বলছে, যে সাত জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে তারা ইরানের ভেতরে থেকেই মার্কিন প্রতিষ্ঠানগুলোতে হ্যাকিং-এর চেষ্টা করছিলেন। অভিযুক্তরা ইরান সরকারের হয়ে কাজ করছিলেন বলেই অভিযোগ যুক্তরাষ্ট্রের।
এছাড়া এর সঙ্গে ইরানের সেনাবাহিনী রেভ্যুউলিশনারি গার্ড-ও জড়িত রয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। ‘হ্যাকাররা অত্যন্ত অভিজ্ঞ’ বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।
মার্কিন অ্যাটর্নি জেনারেল, লরেটা লিঞ্চ বলেছেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বাস করে যে, আমেরিকান অনলাইন অপারেশন সিস্টেমকে ক্ষতিগ্রস্ত করার উদ্দেশ্যেই এই সকল হামলা চালানো হয়েছে।’

এসব হামলার কারণে হ্যাকিং-এর শিকার প্রতিষ্ঠানগুলোর লাখ লাখ ডলার লোকসান হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন লরেটা লিঞ্চ।

অভিযুক্তদের নাম-আহমদ ফাথি, হামিদ ফিরোজি, আমিন শোকোহি, সাদেঘ আহমদজাদেগান, ওমিদ গাফফারিনিয়া, সিনা কেইসার ও নাদের সেইদি। এর মধ্যে আহমদজাদেগান ও গাফফারিনিয়া নাসার সার্ভার ও ওয়েবসাইটে হামলার দায় স্বীকার করে। আর ফিরোজি নিউইয়র্কের বোউমান ড্যামের কম্পিউটার সিস্টেমে ঢুকতে পারতেন।

তবে এসব অভিযুক্তকে ইরান যে যুক্তরাষ্ট্রের হাতে তুলে দেবে সেরকম কোনও সম্ভাবনা নেই। অবশ্য এফবিআই কর্মকর্তাদের আশা, পৃথিবী ছোট হওয়ায় কোনও না কোনও সময় ওই অভিযুক্তরা যুক্তরাষ্ট্রে আসতে পারেন। আর তাই তাদের ধরার জন্য তৎপরতা অব্যাহত থাকবে।

সূত্র: বিবিসি

/এফইউ/

samsung ad on Bangla Tribune

লাইভ

টপ