ঘুষ নেওয়া সেই মার্কিন কর্মকর্তার ৪ বছরের কারাদণ্ড

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৬:৫৫, মার্চ ২৬, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৫৫, মার্চ ২৬, ২০১৬

ঘুষের বিনিময়ে মালয়েশীয় প্রতিরক্ষা ঠিকাদারের কাছে গোপন তথ্য ফাঁস করার দায়ে নৌবাহিনীর সেই উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাকে প্রায় চার বছর কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এই অভিযোগে ২০১৫ সালে দোষী সাব্যস্ত হন ডুসেক। আদালতকে তিনি বলেন, নিজের কৃত কর্মের জন্য তিনি কোনোদিন নিজেকে ক্ষমা করবেন না।
ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, কারাদণ্ডের পাশাপাশি ডুসেককে ৭০ হাজার ডলার জরিমানা ও নৌবাহিনীকে ৩০ হাজার ডলার ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। রায় থেকে জানা গেছে, অভিযুক্ত কর্মকর্তা ড্যানিয়েল ডুসেক বিলাসবহুল হোটেলে অবস্থান ও যৌনকর্মীদের সেবার বিনিময়ে ওইসব তথ্য ফাঁস করেন।
যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীর ইতিহাসে এটি অন্যতম বড় ধরনের অবৈধ লেনদেনের ঘটনা। এ ধরনের ঘটনায় জড়িয়ে পড়া সামরিক কর্মকর্তাদের মধ্যে ডুসেকই সবচেয়ে উচ্চপদস্থ।
৪৯ বছর বয়সী ডুসেককে ৪৬ মাস কারাদণ্ডের আদেশ দিয়ে ক্যালিফোর্নিয়ার সান দিয়াগো আদালতের বিচারক জ্যানিস স্যামমার্তিনো বলেন, ‘আদালতের কাছে এটি সত্যিই অকল্পনীয় যে যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীতে আপনার মতো অবস্থানে থাকা একজন ব্যক্তি, হোটেল রুম, এন্টারটেনমেন্টে এবং যৌনকর্মীদের বিনিময়ে তথ্য পাচার করেছেন।’
নৌবাহিনীর এই সাবেক ক্যাপ্টেন বেশ কয়েকজন কর্মরত ও সাবেক নৌকর্মকতাদের অন্যতম যাদের বিরুদ্ধে কোটি কোটি ডলার ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ আনা হয়েছে। কর্মরত অবস্থায় ডুসেক যুক্তরাষ্ট্রের সপ্তম নৌ-বহরের ডেপুটি ডিরেক্টর অব অপারেশন্স হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। সূত্র: বিবিসি, গার্ডিয়ান

/বিএ/

লাইভ

টপ