যৌতুকের কারণে ভারতীয় মডেলের আত্মহত্যা

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২০:০৩, মার্চ ২৮, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:০৩, মার্চ ২৮, ২০১৬

ভারতের দক্ষিণ দিল্লির একটি কলোনিতে ২৫ বছরের এক মডেল গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। রবিবার সকালে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। আত্মহত্যাকারী সাবেক এই মডেল মৃত্যুর আগে একটি সুইসাইড নোট লিখে গেছেন। এতে তিনি লিখেছেন, তার স্বামী নিয়মিত তাকে মারধর করতে। এ নির্যাতন আর সহ্য করতে না পেরেই তিনি আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন।

আত্মহত্যাকারী ভারতীয় মডেল প্রিয়াঙ্কা কাপুর

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবরে বলা হয়েছে, প্রিয়াঙ্কা কাপুর নামের ওই মডেল চলতি বছরের জানুয়ারিতে বিয়ে করেন নিতিন চাওলাকে। প্রিয়াঙ্কার পরিবারের অভিযোগ, নিতিন প্রায়ই যৌতুকের দাবিতে তাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করতেন। শহরে চাওলার বেশ কয়েকটি মদের দোকান রয়েছে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে নিতিন জানিয়েছেন, তিনি আর্থিক সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন। দুই মাস ধরে তিনি দোকানের ভাড়া দিতে পারছেন না।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবরে আরও বলা হয়েছে, শনিবার দিবাগত রাত (২৭ মার্চ) রাত সাড়ে বারোটার দিকে প্রিয়াঙ্কার পরিবারের সদস্যরা পুলিশকে ফোন করেন। তারা জানান, প্রিয়াঙ্কার রুম ভেতর থেকে তালা দেওয়া এবং তাদের ডাকে সাড়া দিচ্ছেন না।  ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) প্রেম নাথ জানান, পরিবারের কাছ থেকে খবর পেয়ে তারা ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতা নিয়ে দরজা ভেঙে রুমে প্রবেশ করেন।

ইন্ডিয়া টুডের খবরে বলা হয়েছে, রুম থেকে দুটি সুইসাইড নোট পাওয়া গেছে। তার একটিতে প্রিয়াঙ্কা বলেছেন, বেপরোয়া মনোভাব থেকেই তিনি চাওলাকে বিয়ে করেন। এটাকে জীবনের সবচেয়ে মারাত্মক হিসেবেও তিনি উল্লেখ করেন।

প্রিয়াঙ্কাকে বিয়ে করার জন্য চাওলা তার আগের স্ত্রীকে ডিভোর্স দেন। প্রথম স্ত্রীর দশ বছরের একটি ছেলে রয়েছে। ছেলেটি তাদের বাসাতেই থাকত। প্রিয়াঙ্কা এতে খুশি ছিলেন না। বাক বিতণ্ডার এক পর্যায়ে প্রিয়াঙ্কাকে বাসা ছেড়ে চলে যেতে বলেন। সুইসাইড নোটে প্রিয়াঙ্কা লিখেছেন, নিতিন চাইতো আমি বাসা ছেড়ে চলে যাই। এখন আমি পৃথিবী ছেড়েই চলে যাচ্ছি।

প্রিয়াঙ্কার বোন ডিম্পি কাপুরের অভিযোগের ভিত্তিতে চাওলার বিরুদ্ধে মামলা নিয়েছে পুলিশ। সূত্র: হাফিংটন পোস্ট।

/এএ/

লাইভ

টপ