behind the news
Rehab ad on bangla tribune
Vision Refrigerator ad on bangla Tribune

পাকিস্তানে ‘র’ গুপ্তচরের স্বীকারোক্তিমূলক ভিডিও ভুয়া: ভারত

বিদেশ ডেস্ক১৬:০৭, মার্চ ৩০, ২০১৬

কথিত ভারতীয় গুপ্তচরের স্বীকারোক্তিমূলক ভিডিওবেলুচিস্তানে নাশকতামূলক কার্যকলাপ এবং গোয়ান্দাবৃত্তির অভিযোগে গ্রেফতার ভারতীয় নৌবাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা কুলভূষণ যাদবের স্বীকারোক্তিমূলক ভিডিও প্রকাশের তীব্র সমালোচনা করেছে ভারত। তাদের পক্ষ থেকে ওই ভিডিওকে ‘ভুয়া’ এবং ওই ভারতীয়কে ইরান থেকে অপহরণ করা হয়েছে বলেও দাবি করা হয়।
মঙ্গলবার বেলুচিস্তানে আটক ভারতের ‘গোয়েন্দা’র স্বীকারোক্তিমূলক ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করে পাকিস্তান কর্তৃপক্ষ। পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে এক সংবাদ সম্মেলনে লেফটেন্যান্ট জেনারেল অসীম বাজওয়া ও কেন্দ্রীয় সরকারের তথ্যমন্ত্রী পারভেজ রশিদ ওই ভিডিও প্রকাশ করে দাবি করেন, যাদব এখনও ভারতীয় নৌবাহিনীর লোক। ২০২২ সালে অবসর নেওয়ার কথা তার। তবে ভারত সরকারের পক্ষ থেকে সে কথা খারিজ করে জানিয়ে দেওয়া হয়, নৌবাহিনী থেকে মেয়াদ শেষের অনেক আগেই অবসর নিয়েছেন যাদব। ফলে তার সঙ্গে ভারত সরকারের কোনও যোগ নেই।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ
লেফটেন্যান্ট জেনারেল অসীম বাজওয়া দাবি করেন, ‘র’ প্রধান ও ভারতীয় জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা একযোগে কুলভূষণ যাদবকে নির্দেশনা দিয়েছেন। জেনারেল বাজওয়া আরও দাবি করেন, চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডর বা সিপিইসি উন্নয়ন ব্যহত করাই ছিল যাদবের লক্ষ্য এবং গোয়াদর বন্দর ছিলও তার লক্ষ্যবস্তু। একে রাষ্ট্র পরিচালিত সন্ত্রাসবাদ হিসেবে দাবি করে তিনি আরও বলেন, ‘পাকিস্তানে ভারতীয় হস্তক্ষেপের বিষয়ে এর চেয়ে পরিষ্কার আলামত আর কিছু হতে পারে না।’

প্রতিক্রিয়ায় ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আমরা পাকিস্তান কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে প্রকাশিত একটি ভিডিও দেখেছি। সেখানে দেখানো প্রাক্তন নৌকর্মকর্তা ইরানে ব্যবসা করতেন। কিন্তু তাকে কোন পরিস্থিতিতে পাকিস্তানি কর্তৃপক্ষ আটক করা হয়েছে, তা উল্লেখ করা হয়নি।’ ওই বিবৃতিতে অভিযোগ করা হয়, ভারতীয় দূতাবাসকে ওই ভারতীয় ব্যক্তির সঙ্গে দেখা করতে দেওয়া হয়নি। ভারত ওই সাবেক নৌকর্মকর্তার গোয়েন্দা হওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে দাবি করেছে, ওই সাবেক নৌকর্মকর্তাকে ইরান থেকে অপহরণ করে পাকিস্তানে ধরে আনা হয়েছে এবং জোরপূর্বক স্বীকারোক্তিমূলক ভিডিও বানানো হয়েছে। ওই ব্যক্তিকে মুক্তি দেওয়ার আহ্বান জানানো হয় ওই বিবৃতিতে।

সংবাদ সম্মেলনে লেফটেন্যান্ট জেনারেল অসীম বাজওয়া ও কেন্দ্রীয় সরকারের তথ্যমন্ত্রী পারভেজ রশিদ 

ছয় মিনিটের ওই ভিডিও ফুটেজে পাকিস্তানে বিশেষ করে বেলুচিস্তান প্রদেশ এবং বন্দর নগরী করাচিতে সন্ত্রাসী তৎপরতায় ‘র’-এর জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করেছেন আটক ভারতীয় নৌবাহিনীর ওই কর্মকর্তা। অন্য দেশের কোন গুপ্তচর বা এই ধরনের পদে আসীন সশস্ত্র বাহিনীর কোন কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করতে পারাটা আরেকটি দেশের জন্য বিরাট কৃতিত্বের ব্যাপার বলে মনে করছে পাকিস্তান সেনা কর্তৃপক্ষ। সূত্র: ডন, বিবিসি, এনডিটিভি।

/এসএ/বিএ/

Ifad ad on bangla tribune

লাইভ

Nitol ad on bangla Tribune
টপ