Vision  ad on bangla Tribune

হিলারির কার্যালয়ের সামনে বাংলাদেশি রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থীদের বিক্ষোভ

বিদেশ ডেস্ক২১:১২, মার্চ ৩০, ২০১৬

যুক্তরাষ্ট্রের ব্রুকলিনে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট প্রার্থীতাপ্রত্যাশী হিলারি ক্লিনটনের নির্বাচনি প্রচারণার সদর দফতরের সামনে বিক্ষোভ করেছেন দেশটিতে রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থী বাংলাদেশিরা। মঙ্গলবার প্রত্যর্পণের তালিকায় থাকা কয়েকশ বাংলাদেশি রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থী এ বিক্ষোভ করেন।

হিলারি ক্লিনটন ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিবাসন-বিরোধী প্রস্তাবের সমালোচনা করেছেন। তবে বিক্ষোভকারীরা জানতে চেয়েছেন, হিলারি কি তাদের প্রত্যর্পণ বন্ধ করবেন।

বিক্ষোভে কয়েকশ মানুষ অংশ নেন এবং তা প্রায় দুই ঘণ্টা চলে। বিক্ষোভকারীদের মধ্যে বেশ কয়েকজন রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থী রয়েছেন যারা গত বছর বিভিন্ন কারাগারে অনশন কর্মসূচি পালন করেছিলেন। প্রত্যর্পণ ও কারাগারের খারাপ পরিবেশের বিরুদ্ধে তারা এই অনশন করেছিলেন।

গত বছর এল পাসো কারাগারে বন্দি থাকা ৩১ বছরের কামরান আহমদ শঙ্কা প্রকাশ করে জানান, এখনও বেশ কিছু বাংলাদেশি কারাগারে আছেন এবং তাদেরকে জোর করে বাংলাদেশে পাঠানো হতে পারে। তিনি বলেন, এদের বেশিরভাগই রাজনৈতিক আশ্রয় প্রার্থী। দেশে ফিরলে তাদেরকে অপহরণ ও নির্যাতন করা হতে পারে।

কামরান আরও জানান, সংবাদমাধ্যমে তাদের নাম প্রকাশিত হয়ে গেছে। ফলে বাংলাদেশ সরকার জানে তারা কারা। ইতোমধ্যেই তাদের পরিবারকে হুমকি দেওয়া হয়েছে। যদি কোনও পদক্ষেপ নেওয়া না হয় তাহলে তাদেরকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেওয়া হবে।

হিলারি ক্লিনটনের প্রচারণার এক পরিচালক মিনি তিম্মারাজু বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে কথা বলেন। তিনি প্রতিশ্রুতি দেন এ বিষয়ে ক্লিনটন সাড়া দেবেন।

বিক্ষোভটি আয়োজন করেছিল ডিআরইউএম নামক সামাজিক বিচার নিশ্চিত করার পক্ষে আন্দোলনকারী একটি সংস্থা। ডিআরইউম মূলত দক্ষিণ এশিয়ার অভিবাসীদের নিয়ে কাজ করে।

ডিআরইউএম-এর নির্বাহী পরিচালক ফাহদ আহমেদ বলেন, দক্ষিণ এশিয়ার প্রায় ৫০০জন রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থী প্রত্যর্পণের মুখে রয়েছেন। এদের মধ্যে বেশ কয়েকজন রয়েছেন যারা বাংলাদেশে ফিরলে তাদের কারাগারে, গুম এবং নির্যাতন ও মৃত্যু আশঙ্কা করছেন।   সূত্র: এনওয়াই ডেইলি নিউজ।

/এএ/

লাইভ

টপ