সিরিয়ার যুদ্ধে অংশ নেওয়া ইউরোপীয়দের ১৪ শতাংশই প্রাণ হারিয়েছেন

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৮:৩৩, এপ্রিল ০২, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৩৩, এপ্রিল ০২, ২০১৬

সিরিয়ায় সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলোর হয়ে লড়াই করতে যাওয়া ৪ হাজারেরও বেশি ইউরোপীয় নাগরিকের মধ্যে প্রায় প্রাণ হারিয়েছেন ১৪ শতাংশ। আর দেশে ফিরে গেছেন ৩০ শতাংশ। হেগভিত্তিক সন্ত্রাস ও সন্ত্রাসবিরোধী কার্যক্রমবিষয়ক গবেষণাকেন্দ্র ‘ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর কাউন্টার টেরোরিজমের’ এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য জানানো হয়েছে।
শুক্রবার প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, যারা দেশে ফিরেছেন তাদের উদ্দেশ্য কী, সে ব্যাপারে নিশ্চিত না হওয়া গেলেও ২০১৪ সালে ডাচ নিরাপত্তা ও গোয়েন্দা বিভাগের গবেষণায় বিভিন্ন কারণ উল্লেখ করা হয়েছে। এসব কারণের মধ্যে রয়েছে- হতাশ হওয়া, আতঙ্কিত হওয়া, বিশ্বাসঘাতকতার শিকার হওয়া, নৃশংসতার ব্যাপারে বোধ তৈরি হওয়া, অনুশোচনা, অন্যদের নিয়োগ দেওয়া কিংবা নিজ দেশে হামলা চালানোর পরিকল্পনা। যারা দেশে ফিরেছেন তাদের ১৭ শতাংশ নারী আর ২৩ শতাংশ ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত হয়েছেন।
প্রতিবেদনে বলা হয়, সিরিয়ায় সশস্ত্র গোষ্ঠীর হয়ে লড়াই করতে যাওয়া ইউরোপীয়দের মধ্যে বেশিরভাগই ফ্রান্স, জার্মানি ও ব্রিটেনের নাগরিক। তবে জনসংখ্যা অনুপাতে বেলজিয়ামের নাগরিকদের অংশগ্রহণের হার সবচেয়ে বেশি। বেলজিয়ামে প্রতি ১০ লাখ জনসংখ্যার মধ্যে ৪১ জন সিরিয়ায় লড়াই করতে গেছেন। সিরিয়া থেকে দেশে ফেরত যাওয়া বেলজিয়ামের যোদ্ধাদের হার মাত্র ১৮ শতাংশ।
তবে সব বিদেশি যোদ্ধাই সন্ত্রাসী নয়, সব সন্ত্রাসীই বিদেশি যোদ্ধা নয় বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। তাছাড়া যারা দেশে ফিরেছেন তারা সবাই সমাজের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ নয় বলেও উল্লেখ করা হয়েছে। সূত্র: আল জাজিরা
/এফইউ/বিএ/

লাইভ

টপ