নিখোঁজ মালয়েশীয় বিমানের ‘ভেতরকার’ ধ্বংসাবশেষ পরীক্ষার উদ্যোগ

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৪:৩৩, এপ্রিল ০৩, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:৩৩, এপ্রিল ০৩, ২০১৬

মরিশাসের একটি দ্বীপে সন্ধান পাওয়া ধ্বংসাবশেষটি নিখোঁজ মালয়েশীয় বিমান এমএইচ-৩৭০ এর অংশ কিনা তা নিশ্চিত হতে পরীক্ষা হবে বলে জানিয়েছে অস্ট্রেলীয় কর্তৃপক্ষ। ধ্বংসাবশেষটি যিনি পেয়েছেন সেই ব্যক্তির দাবি, সন্ধান পাওয়া টুকরোটির নকশা দেখে মনে হচ্ছে এটি বিমানের ভেতরকার অংশ। আর তার এ দাবিটি প্রমাণ হলে এটিই হবে নিখোঁজ বিমানটির ভেতরকার কোনও অংশের সন্ধান পাওয়ার প্রথম ঘটনা।

মরিশাসের দ্বীপে পাওয়া ধ্বংসাবশেষ

গত সপ্তাহে মরিশাসের রোড্রিগুয়েস আইল্যান্ডে সম্ভাব্য আরেকটি ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পান স্থানীয় একটি হোটেলের মালিক। মৌরুক উবোনি নামের ওই হোটেলের মালিক উইলিয়াম অগাস্টে বলেন, ‘এটি দেখতে যে বিমানের অংশের মতো সে ব্যাপারে কোনও সন্দেহ নেই। কেবল তাই নয়, এটি বিমানের ভেতরের অংশের মতো দেখতে। কারণ বিমানের ভেতরে ওয়ালপেপার লাগানো থাকে। আপনারা খেয়াল করলে দেখতে পাবেন সেরকম কিছু নকশা ধ্বংসাবশেষটিতে এখনও দেখা যাচ্ছে।’ 

২৩৯ জন আরোহী নিয়ে কুয়ালালামপুর থেকে বেইজিং যাওয়ার পথে গত বছরের মার্চে মালয়েশীয় বিমানটি রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়ে যায়। ধারণা করা হয়, বিমানটি হয়তো ভারত মহাসাগরের দক্ষিণ অংশে বিধ্বস্ত হয়েছে। বিমানটির পরিণতি সম্পর্কে এখন পর্যন্ত নিশ্চিত করে কোনও তথ্য পাওয়া না গেলেও বিভিন্ন দ্বীপ এলাকায় মাঝে মাঝেই সম্ভাব্য ধ্বংসাবশেষ প্রাপ্তির খবর বিশেষজ্ঞদের আশাবাদী করে তোলে।

গত বছর প্রথমবারের মতো ভারত মহাসাগরে অবস্থিত রিইউনিয়ন দ্বীপে পাওয়া ধ্বংসাবশেষটি মালয়েশীয় বিমানের বলে নিশ্চিত করে ফরাসি কর্তৃপক্ষ। এর পরে মোজাম্বিকেও ধ্বংসাবশেষ পাওয়া যায়। গত মাসে অস্ট্রেলীয় কর্তৃপক্ষ জানায়, মোজাম্বিকে পাওয়া ধ্বংসাবশেষটি যে মালয়েশীয় বিমানের অংশ তা ‘অনেকটাই নিশ্চিত’।

দুই বছর পেরিয়ে যাওয়ার পরও মালয়েশীয় বিমানের পরিণতি জানা যায়নি

আর সর্বশেষ নতুন এ ধ্বংসাবশেষের ব্যাপারে অস্ট্রেলিয়ার পরিবহনমন্ত্রী ড্যারেন চেস্টার বলেন, ‘গত সপ্তাহে পাওয়া এ ধ্বংসাবশেষটি নিয়ে বেশ আগ্রহের জায়গা রয়েছে।’

এদিকে মালয়েশীয় বিমানটির খোঁজে ভারত মহাসাগরের দক্ষিণভাগে অভিযান চলছে। এ পর্যন্ত নির্ধারিত ১ লাখ ২০ হাজার বর্গ কিলোমিটারের মধ্যে ৯৫ হাজার বর্গকিলোমিটার এলাকায় অভিযান চালানো হয়েছে। আগামি জুনে অভিযান শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। সূত্র: বিবিসি, সিএনএন

/এফইউ/বিএ/

লাইভ

টপ