আবারও চালু হলো হিরোশিমা পিস মেমোরিয়াল মিউজিয়াম

Send
জার্নি ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৬:০০, এপ্রিল ২৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:০৯, এপ্রিল ২৫, ২০১৯

হিরোশিমা পিস মেমোরিয়াল মিউজিয়ামজাপানের হিরোশিমা শহরে পারমাণবিক বোমা হামলার স্মৃতিস্মারক সংরক্ষণে ১৯৫৫ সালে চালু হয় হিরোশিমা পিস মেমোরিয়াল মিউজিয়াম। জাপানে সবচেয়ে জনপ্রিয় জাদুঘরগুলোর মধ্যে এটি অন্যতম। ২০১৭ সালে সেখানে ১৬ লাখ ৮০ হাজার ৯২৩ জন দর্শনার্থীর সমাগম ঘটে। কিন্তু তারপর এটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

দুই বছরের ব্যাপক সংস্কারের পর বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) আবারও চালু হয়েছে হিরোশিমা পিস মেমোরিয়াল মিউজিয়াম। এতে রয়েছে পারমাণবিক বোমা হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের পোশাক থেকে শুরু করে বিভিন্ন নিদর্শন।

হিরোশিমা পিস মেমোরিয়াল মিউজিয়ামপৃথিবীর ইতিহাসে সবচেয়ে ধ্বংসাত্মক অস্ত্র পারমাণবিক বোমার ব্যবহারের কারণে ১ লাখ ৪০ হাজার মানুষকে প্রাণ হারাতে হয়েছে। তাদের শোকগ্রস্ত পরিবার ও বোমা হামলার ঘটনায় আহতদের দান করা অনেক নিদর্শন ও উপকরণ এখন প্রদর্শিত হচ্ছে জাদুঘরে। এগুলো ঘুরে দেখা দর্শনার্থীদের জন্য আবেগপ্রবণ এক অভিজ্ঞতা।

হিরোশিমা পিস মেমোরিয়াল মিউজিয়ামভ্রমণকারীরা চাইলে হিরোশিমা পিস মেমোরিয়াল পার্ক ঘুরে দেখতে পারেন। পারমাণবিক বোমা বিস্ফোরণের ঘটনাস্থলে খোলা মাঠে এটি গড়ে তোলা হয়েছে। একসময় জায়গাটি শহরের ব্যস্ততম বাণিজ্যিক এলাকা ছিল। প্রতি বছর ৬ আগস্ট পিস মেমোরিয়াল সিরিমনি হয় সেখানে।

জেনবাকু ডোমপার্কের কাছেই রয়েছে জেনবাকু ডোম নামের একটি স্থাপত্য। একসময় এটি হিরোশিমা শহরের বাণিজ্যিক প্রচারণার মিলনায়তন হিসেবে ব্যবহৃত হতো। পারমাণবিক বোমা হামলার অন্যতম স্মৃতিচিহ্ন হিসেবে দাঁড়িয়ে রয়েছে এটি।

হিরোশিমা পিস মেমোরিয়াল মিউজিয়াম১৯৪৫ সালের ৬ আগস্ট আমেরিকার নিক্ষেপ করা পারমাণবিক বোমা হিরোশিমার জেনবাকু ডোম ভবনের ঠিক ওপরে বিস্ফোরণ হয়। এই ধ্বংসাবশেষ ১৯৯৬ সালে ইউনেস্কো বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকাভুক্ত হয়। ২০১৬ সালে তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা হিরোশিমা পিস মেমোরিয়াল মিউজিয়াম পরিদর্শন করেন। তখনই পারমাণবিক অস্ত্রবিহীন বিশ্বের ডাক দেন তিনি।

সূত্র: সিএনএন

/জেএইচ/
টপ