ডিউটি ফ্রি শপে মানিব্যাগ চুরির অভিযোগে ভারতীয় পাইলট সাসপেন্ড

Send
জার্নি ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:০০, জুন ২৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:১৩, জুন ২৩, ২০১৯

এয়ার ইন্ডিয়াবিশ্বের সব বিমানবন্দরে ডিউটি ফ্রি শপ আছে। উড়োজাহাজে ভ্রমণের আগে-পরে যাত্রীরা এসব দোকানে কেনাকাটা করে থাকেন। ক্রেতা হিসেবে মাঝে মধ্যে পাইলট আর কেবিন ক্রু সদস্যদেরও দেখা যায় এগুলোতে। সিডনি বিমানবন্দরে শনিবার (২২ জুন) এমন একটি দোকানে ভারতের একজন পাইলট চুরির ঘটনার জন্ম দিলেন! তবে পার পেয়ে যাননি তিনি।

ভারতের রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী বিমান সংস্থা এয়ার ইন্ডিয়ার ওই জ্যেষ্ঠ বৈমানিকের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ার সিডনি বিমানবন্দরের ডিউটি ফ্রি শপে মানিব্যাগ চুরির অভিযোগ উঠেছে। এ কারণে রবিবার (২৩ জুন) তাকে সাসপেন্ড (সাময়িক বরখাস্ত) করা হয়।

সাসপেনশনের আদেশে বলা হয়েছে, শনিবার (২২ জুন) এআই৩০১ ফ্লাইট চালানোর জন্য সিডনি বিমানবন্দরে যান ওই পাইলট। বিমানে ওঠার আগে সিডনি বিমানবন্দরের একটি ডিউটি ফ্রি শপ থেকে তিনি মানিব্যাগ চুরি করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

এয়ার ইন্ডিয়ার মুখপাত্র ধনঞ্জয় কুমার বলেন, প্রাথমিক রিপোর্টে ওই পাইলটের বিরুদ্ধে সিডনি বিমানবন্দরের একটি শুল্কমুক্ত দোকানে মানিব্যাগ চুরির অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাকে সাময়িক বরখাস্তের পাশাপাশি ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

এই মুখপাত্রের কথায়, ‘আমাদের বিমান সংস্থা কর্মীদের যথাযথ আচরণের দিককে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেয়। আর অন্যায় আচরণের ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করা হয়।’

এয়ার ইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষ জানায়, তাদের ক্যাপ্টেন রোহিত ভাসিন অস্ট্রেলিয়ার আঞ্চলিক পরিচালক হিসেবে কাজ করেন। তিনিই সিডনির ঘটনা এই বিমান সংস্থার সদর দফতরে জানান। এরপর অভিযুক্ত পাইলট দিল্লি বিমানবন্দরে পৌঁছানোর পরই তার হাতে সানপেনশনের চিঠি ধরিয়ে দেওয়া হয়। একইসঙ্গে তাকে লাইসেন্স জমা দিতে হয়েছে। আপাতত নিজের বেজ স্টেশন কলকাতা না ছাড়ার আদেশ পেয়েছেন তিনি।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

/জেএইচ/
টপ