ঘুম থেকে উঠে যাত্রী দেখেন বিমানে কেউ নেই!

Send
জার্নি ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৬:৩১, জুন ২৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৩১, জুন ২৪, ২০১৯

এয়ার কানাডাএয়ার কানাডার একটি ফ্লাইটে ঘুমিয়ে পড়েছিলেন একজন নারী যাত্রী। তার নাম টিফানি অ্যাডামস। ঘুম ভাঙার পর চোখ খুলে ভড়কে যান তিনি। আতঙ্ক ঘিরে ধরে তাকে। কারণ পুরো উড়োজাহাজ তখন অন্ধকার আর শূন্য!

ঘটনাটি গত ৯ জুনের। প্রায় ১১ দিন পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে এটি প্রকাশ্যে এলো। টিফানির ভূতুড়ে অভিজ্ঞতা স্ট্যাটাস আকারে দিয়েছেন তার বন্ধু ডিয়ানা ডেল। এয়ার কানাডার অফিসিয়াল পেজেও শেয়ার দেওয়া হয়েছে সেটি। 
জানা যায়, কানাডার পতাকাবাহী এই বিমান সংস্থার ফ্লাইটে চড়ে ক্যুবেক থেকে টরন্টো যাচ্ছিলেন টিফানি। হঠাৎ ঘুমে ঢলে পড়েন তিনি। জেগে ওঠার পর হাত-পা ঠাণ্ডা অবস্থায় নিজেকে একাকী আবিষ্কার করেন এই যাত্রী। ততক্ষণে অন্য সব যাত্রী আর কেবিন ক্রু নামার পর উড়োজাহাজটি বিমানবন্দরে পার্ক করা হয়ে গেছে। কিন্তু তিনি ছিলেন ঘুমের দেশে! 


ওই ঘটনার পর থেকে অনিদ্রায় ভুগছেন বলে জানান টিফানি অ্যাডামস। তিনি বলেন, ‘উড়োজাহাজটি অবতরণের কয়েক ঘণ্টা পর আমার ঘুম ভাঙে। তখন মধ্যরাত। কেবিনের ভেতরের পরিবেশ ছিল প্রচণ্ড ঠাণ্ডা। পুরোপুরি অন্ধকারে আসনে একা ছিলাম। মনে হচ্ছিল কোনও দুঃস্বপ্ন দেখছি! এখন রাত হলেই ভয় আঁকড়ে ধরে আমাকে।’

এরপর বন্ধু ডিয়ানা ডেলকে ফোন করে নিজের অবস্থান জানান টিফানি। কিন্তু কল করার এক মিনিটেরও আগে তার মোবাইলের চার্জ শেষ হয়ে যায়। তখন চার্জ দেওয়ারও উপায় নেই। ডিয়ানা বুদ্ধি করে টরন্টো পিয়ারসন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যোগাযোগ করে টিফানির ঘটনা খুলে বলেন।
এদিকে টিফানি অ্যাডামস আসন থেকে উঠে বিমানের ককপিটে গিয়ে টর্চলাইট খুঁজে বের করেন। এরপর একটি দরজা খুলতে সক্ষম হন। কিন্তু ৫০ ফুট উঁচু কেবিন থেকে নামা সম্ভব হচ্ছিল না। তাই আলো জ্বালিয়ে মনোযোগ আকর্ষণের চেষ্টা চালান। বিফলে যায়নি তার শ্রম। একজন ব্যাগেজ ট্রলি অপারেটর পার্ক করা বিমানে টর্চ জ্বলতে দেখে হতবাক হয়ে যান।

বিমানবন্দরে দায়িত্বরত এয়ার কানাডার কর্মকর্তারা টিফানি অ্যাডামসকে একটি লিমুজিন গাড়ি ও হোটেল রুম অফার করেছিলেন। কিন্তু এসব সুবিধা না নিয়ে যত দ্রুত সম্ভব বাসায় ফিরে যেতে চান বলে জানান তিনি। 

কানাডার সিটিভি নিউজকে এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছে এয়ার কানাডা কর্তৃপক্ষ। তারা এখন বিষয়টি তদন্ত করে খতিয়ে দেখছে। এর অংশ হিসেবে তাদের প্রতিনিধিরা টিফানি অ্যাডামসকে দু’বার কল দিয়ে ক্ষমা চেয়েছেন।

সূত্র: বিবিসি

/জেএইচ/
টপ