বালিতে হোটেলের জিনিস চুরি করে ধরা পড়লো ভারতীয় পরিবার

Send
জার্নি ডেস্ক
প্রকাশিত : ১২:৩৩, জুলাই ৩০, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪০, জুলাই ৩০, ২০১৯

লাগেজ তল্লাশি করে পাওয়া চুরির জিনিসপত্র ভারতীয়দের জন্য বিব্রতকর ব্যাপার! হোটেলের জিনিস চুরি করে ধরা পড়া লজ্জার। আর সেই ঘটনার ভিডিও যদি ছড়িয়ে পড়ে তাহলে ইজ্জত আর থাকে!
ইন্দোনেশিয়ার বালিতে ভারতীয় একটি পরিবার এমন অনৈতিক কাণ্ড করে বসেছে। তাদের কাছ থেকে চুরির মালামাল পাওয়ার ভিডিও এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল।

ভারত থেকে বেড়াতে যাওয়া ওই পরিবারকে হোটেল কর্মীরা নিন্দা করেছেন। তাদের সব লাগেজ তল্লাশি করে একাধিক জিনিস পাওয়া গেছে। এর মধ্যে আছে আয়না, হ্যাঙ্গার, রুমের দেয়ালে সাজানো শিল্পকর্ম, তোয়ালে, হ্যান্ডওয়াশিং লিক্যুইড সোপ, হেয়ারড্রায়ারসহ ইলেক্ট্রনিক্স পণ্য।

জানা গেছে, রুমে থাকাকালীন হোটেলকর্মীদের সঙ্গে ব্যবহার ভালো ছিল না ওই পরিবারের। তবে চুরির জিনিস নিয়ে ধরা পড়ার পর তা বদলেছে। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে একজন নারী পুলিশে খবর না দেওয়ার অনুরোধ করেন হোটেল ম্যানেজমেন্টকে। তাদের ফ্লাইট ধরতে হবে জানিয়ে ছেড়ে দেওয়ার জন্য আকুতি জানান তিনি।
পরিস্থিতি বেগতিক দেখে পরিবারের কর্তা চুরির জিনিসের মূল্য পরিশোধ করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু হোটেল কর্তৃপক্ষ টাকা নিতে অস্বীকৃতি জানায়। পরিবারটির সবার পাসপোর্ট ইন্দোনেশিয়ায় বাতিল করে দেওয়া হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। 

 

ভিডিওটি দেখে বিদেশে ভারতীয়দের নাক কাটা গেছে বলে টুইটারে মন্তব্য করেন অনেকে। পরিচালক কবির খানের সহধর্মিণী মিনি মাথুর বলেন, ‘ভারতীয় ভ্রমণকারীদের মধ্যে অনেকে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করেন, তাদের মধ্যে এটি সবচেয়ে খারাপ উদাহরণ।’

বিদেশে ভারতীয় ভ্রমণপ্রেমীদের ভাবমূর্তি ইতিবাচক নয়। অনেকে দেশে তারা রুক্ষ, অভদ্র ও সংস্কৃতি অজ্ঞ হিসেবে পরিচিত। সুইজারল্যান্ডের একটি হোটেলে তাদের জন্য আলাদা নিয়ম রাখা হয়েছে। যেমন, করিডোরে ও ব্যালকনিতে নীরবতা বজায় রাখা আবশ্যক। সেখানে ভারতীয়দের জন্য আরেকটি নিয়ম হলো, রেস্তোরাঁয় দুইজন অথবা তারও বেশি মানুষের সঙ্গে কোনও পদ ভাগাভাগি করতে চাইলে জনপ্রতি আলাদা চার্জ নেওয়া হবে।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

/জেএইচ/
টপ