বিশ্বের দীর্ঘতম রুটে পরীক্ষামূলক তিনটি ফ্লাইট চালাবে কানটাস

Send
জার্নি ডেস্ক
প্রকাশিত : ২০:১৬, আগস্ট ২৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:১৬, আগস্ট ২৩, ২০১৯

কানটাস এয়ারওয়েজের উড়োজাহাজঅস্ট্রেলিয়ার সিডনি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক ও যুক্তরাজ্যের লন্ডনে ১৯ ঘণ্টার বিরতিহীন বাণিজ্যিক ফ্লাইট চালু করতে যাচ্ছে কানটাস। তার আগে পরীক্ষামূলকভাবে এটি শুরুর পরিকল্পনা আছে তাদের। এত লম্বা ভ্রমণে যাত্রী ও কেবিন ক্রুদের মধ্যে কোনও সমস্যা দেখা দেয় কিনা তা দেখতে চায় অস্ট্রেলিয়ার পতাকাবাহী এই বিমান সংস্থা

আগামী অক্টোবর, নভেম্বর ও ডিসেম্বরে বোয়িং ৭৮৭-৯ উড়োজাহাজের মাধ্যমে পরীক্ষামূলক তিনটি ফ্লাইট পরিচালনা করবে কানটাস। প্রতিটিতে থাকবে ৪০ জন করে আরোহী। তাদের বেশিরভাগই কানটাসের কর্মী। এ কারণে এসব ফ্লাইটে সাধারণ যাত্রীদের চড়ার সুযোগ থাকছে না। 

ইউনিভার্সিটি অব সিডনির বিজ্ঞানী ও মেডিক্যাল বিশেষজ্ঞরা ফ্লাইটগুলোতে যাত্রীদের ঘুমের ধরন, খাবার ও পানীয় পানের হার, আলোর মাত্রা, শারীরিক চলন ও ইন-ফ্লাইট বিনোদন উপভোগের চিত্র পর্যবেক্ষণ করবেন। একইসঙ্গে তাদের স্বাস্থ্য পরখ করে দেখা হবে। ফ্লাইটের আগে ও পরে যাত্রীদের মেলাটোনিন হরমোনের মাত্রা রেকর্ড করতে পাইলটের সঙ্গে থাকবেন মোনাশ ইউনিভার্সিটির গবেষকরা। এছাড়া কাজ করবে অস্ট্রেলীয় সরকার সমর্থিত অ্যালার্টনেস সেফটি অ্যান্ড প্রোডাক্টিভিটি কোঅপারেটিভ রিসার্চ সেন্টার।

কানটাস এয়ারওয়েজের উড়োজাহাজকানটাসের প্রধান নির্বাহী অ্যালান জয়েস জানান, প্রজেক্ট সানরাইজের অংশ হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার পূর্ব উপকূলীয় শহর সিডনি, মেলবোর্ন ও ব্রিসবেন থেকে লন্ডন ও নিউ ইয়র্কে তাদের ফ্লাইট এভিয়েশনে চূড়ান্ত অগ্রযাত্রাকে প্রতিনিধিত্ব করবে। তার মন্তব্য, বেশি দীর্ঘ যাত্রার ফ্লাইটে যাত্রী ও ক্রুদের স্বাচ্ছন্দ্য ও সুস্থতার মতো সাধারণ প্রশ্ন জড়িত।’


২০২৩ সালের শুরু থেকে সিডনি থেকে লন্ডন ও নিউ ইয়র্কে বিরতিহীন ফ্লাইট চালাতে চায় কানটাস। প্রতিটির লাগবে ১৯ ঘণ্টা। তবে বাতাসের গতি ও আবহাওয়ার ওপর তা নির্ভর করছে। ফলে এটাই হবে বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘতম বিরতিহীন বিমান সেবা।

সূত্র: বিবিসি, ডেইলি মেইল

/জেএইচ/
টপ