ডন ইসলামাবাদে ‘কালো তালিকাভুক্ত’ মার্কিন নাগরিক গ্রেফতার

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২৩:০৮, আগস্ট ০৭, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:০৮, আগস্ট ০৭, ২০১৬

ডনপাকিস্তানের ইসলামাবাদ থেকে ‘কালো তালিকাভুক্ত’ এক মার্কিন নাগরিককে গ্রেফতার করা হয়েছে। শনিবার পাকিস্তানের ফেডারেল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি (এফআইএ) এবং পুলিশের যৌথ অভিযানে ইসলামাবাদের এক গেস্ট হাউস থেকে ম্যাথিউ ক্রেইগ ব্যারেট নামক ওই মার্কিন নাগরিককে গ্রেফতার করে। রবিবার পাকিস্তানের অন্যতম ইংরেজি দৈনিক পত্রিকা ডন খবরটি প্রধান শিরোনাম প্রতিবেদন হিসেবে প্রকাশ করেছে।

ম্যাথিউ ক্রেইগ ব্যারেটকে ২০১১ সালে গোয়েন্দাবৃত্তির অভিযোগে ‘কালো তালিকাভুক্ত’ করে পাকিস্তান থেকে বের করে দেওয়া হয়েছিল। শনিবার (৬ আগস্ট) ম্যাথিউ পাকিস্তানি ভিসা নিয়েই রাজধানী ইসলামাবাদের বেনজির ভুট্টো বিমানবন্দরে অবতরণ করেন। আবার বিমানবন্দর থেকে বৈধতা প্রমাণ করে বেরিয়েও আসেন।

প্রশ্ন উঠেছে, ওই ‘কালো তালিকাভুক্ত’ মার্কিন নাগরিক কী করে পাকিস্তানের ভিসা পেলেন, ‘কালো তালিকাভুক্ত’ হওয়ার পরেও কীভাবে তিনি বিমানবন্দর থেকে বৈধতা প্রমাণ করে বেরিয়ে আসতে পারলেন। পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চৌধুরী নিসার আলী খান পুরো বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, হাউসটনে পাকিস্তানি কনস্যুলেটের বিরুদ্ধে বিস্তারিত তদন্তের নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। সেখান থেকেই পাকিস্তানের মাল্টিপল-এন্ট্রি ভিসা পেয়েছিলেন ম্যাথিউ ব্যারেট। চলতি বছরের ২২ জুন ইস্যু হওয়া ওই ভিসার মেয়াদ ছিল ২০২০ সাল পর্যন্ত। ওই ভিসা অনুযায়ী প্রতিবার পাকিস্তানে তিনি অনধিক এক বছর অবস্থান করতে পারবেন।

ম্যাথিউ ব্যারেটকে অত্যন্ত কঠোর নিরাপত্তামূলক স্থান, যেখানে সর্বসাধারণের প্রবেশাধিকার নিষিদ্ধ, এমন স্থানে কেবল প্রবেশ করা নয়, ছবি তুলতেও দেখা গেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। ২০১১ সালে তাকে গোয়েন্দাবৃত্তির অভিযোগে পাকিস্তান থেকে বের করে দেওয়া হয় এবং আজীবনের জন্য পাকিস্তানের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়। সূত্র: ডন।

/এএ/

লাইভ

টপ