দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসপ্রত্যাহার করা পাসপোর্টে চারবার ভ্রমণ করেছেন নীরব মোদি: ইন্টারপোল

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৯:২৪, জুন ১৪, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৩১, জুন ১৪, ২০১৮

ব্যাংক জালিয়াতির দায়ে অভিযুক্ত ভারতীয় ধনকুবের নীরব মোদির পাসপোর্ট প্রত্যাহারের পরও সম্প্রতি তিনি তিনটি দেশে ঘোরাফেরা করেছেন। ১৫ মার্চ থেকে ৩১ মার্চের মধ্যে তিনি ভারতীয় পাসপোর্ট নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন ও হংকং-এ গিয়েছিলেন। ৫ জুন ভারতীয় তদন্তকারী সংস্থাকে এমনটাই জানিয়েছে ইন্টারপোল। অথচ ২৪ ফেব্রুয়ারি ভারতের পররাষ্ট্র দফতর নীরব মোদির পাসপোর্ট প্রত্যাহার করে নিয়েছিল। বৃহস্পতিবার (১৪ জুন) সূত্রটিকে উদ্ধৃত করে করা খবরটিকে প্রধান শিরোনাম করেছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রথম পাতা
এ বছরের ২৯ জানুয়ারি সিবিআই-এর কাছে আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ দায়ের করে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। জানা যায়, ১১৩৭৯ কোটি ৬০ লাখ ২৮ হাজার টাকা জালিয়াতি  হয়েছে। এ অভিযোগের সঙ্গে নাম জড়ায় হীরা ব্যবসায়ী নীরব মোদি ও মেহুল চোকসির। তারা ১৩ হাজার ৫০০ কোটি রুপি জালিয়াতি করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। তবে ব্যাংক জালিয়াতির অভিযোগ প্রকাশ্যে আসার আগেই জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে ভারত ছাড়েন নীরব মোদি। সঙ্গে ছিলেন স্ত্রী, ভাই নিশাল ও মামা মেহুল চোকসি। এরপর জানা যায় নীরব ব্রিটেনে রয়েছেন, চোকসি রয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রে। সূত্রের খবর অনুযায়ী, জানুয়ারির মাঝামাঝি সময়ে নীরব মোদী সিঙ্গাপুরের বাসিন্দা হওয়ার জন্য আবেদন করেন।

২৪ ফেব্রুয়ারি ভারতীয় পররাষ্ট্র দফতরের পক্ষ থেকে নীরব মোদি ও তার মামা মেহুল চোকসির পাসপোর্ট প্রত্যাহার করে নেওয়ার কথা জানানো হয়। নীরব ও চোকসিকে ধরতে ইন্টারপোলের কাছে সহযোগিতা চায় সিবিআই। এর জবাবে ৫ জুন ভারতীয় কর্তৃপক্ষকে একটি চিঠি দেয় ইন্টারপোল। সেই চিঠিতে জানানো হয়, মার্চের ১৫, ২৮, ৩০ ও ৩১ তারিখ ওই পাসপোর্ট নিয়েই ভ্রমণ করেছিলেন নীরব।

সোমবার (১১ জুন) সিবিআই ইন্টারপোলের কাছে নীরব ও নিশালের নামে রেড কর্নার নোটিস জারি করার আবেদন জানায়। মঙ্গলবার (১২ জুন) মুম্বাইয়ের একটি বিশেষ আদালত নীরব মোদি এবং তার পুরো পরিবারের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ওয়ারেন্ট জারি করে। 

/এফইউ/

লাইভ

টপ