দ্য হিমালয়ান টাইমস নেপালে বন্যায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত ভক্তপুর

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২০:৩৪, জুলাই ১৩, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ০৫:২০, জুলাই ১৪, ২০১৮

ভারী বৃষ্টিপাতের ফলে সৃষ্ট বন্যা ও ভূমিধসের কবলে পড়েছে নেপাল। বুধবার রাত থেকে শুরু হওয়া বৃষ্টির কারণে বৃহস্পতিবারের একটি বাড়ি ভূমি ধসের কবলে পড়ে তিনজন নিহতন। আর বন্যায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ভক্তপুর জেলা। খবরটিকে শুক্রবার (১৩ জুলাই) নিজেদের প্রধান শিরোনাম করেছে পত্রিকাটি।

দ্য হিমালায়ান টাইমস এর ১৩ জনু (শুক্রবার) তারিখের পত্রিকার প্রচ্ছদ

গত বুধবার রাত থেকে কাঠমান্ডুসহ নেপালের বেশিরভাগ এলাকায় ভারী বৃষ্টিপাত শুরু হয়। বৃষ্টির ফলে স্থানীয় নদীগুলো উপচে পড়ে আশেপাশে এলাকা প্লাবিত হয়ে বিভিন্ন এলাকায় বন্যা ও ভূমি ধস দেখা দেয়। বন্যার পানিতে ডুবে যাওয়ার দেশটির বিভিন্ন অঞ্চলের সড়ক ও মহাসড়ক অচল হয়ে পড়েছে।

এই বন্যা ও ভূমিধসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত জেলাগুলোর অন্যতম ভক্তপুর। জেলার বেশিরভাগ এলাকাই পানিতে ডুবে গেছে। সেখানকার আরানিকো মহাসড়ক পানিতে ডুবে যাওয়ায় অন্যান্য এলাকার সঙ্গে সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। ভূমিধসের কবলে পড়ে ভক্তপুরের চাঙ্গুনারায়র্ন পৌর এলাকায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। ভূমিধসের কবলে পড়ে একটি বাড়ি মাটির নিচে চাপা পড়লে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

বন্যাক্রান্ত এলাকাগুলোর প্রায় প্রতিটি বাড়ির নীচতলাতেই পানি প্রবেশ করেছে। বাসিন্দারা দৈনন্দিন কাজের জন্য বাইরে বের হতে পারছেন না। বেশিরভাগ দোকান ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানও বন্ধ রয়েছে।

নেপাল সেনাবাহিনী ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা থেকে স্থানীয়দের উদ্ধার করে নিরাপদ স্থানে নেওয়ার জন্য তৎপরতা শুরু করেছে। আর  নেপালের আবহাওয়া বিভাগের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, রাজধানী কাঠমান্ডুসহ বিভিন্ন এলাকায় আরও কয়েকদিন ভারী বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকবে। এজন্য সাধারণ মানুষকে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। 

/আরএ/

লাইভ

টপ