ডনবিশ্ববিদ্যালয়ের হামলার পেছনে যারা

বিদেশ ডেস্ক১৪:৫২, জানুয়ারি ২৪, ২০১৬

ডনের প্রথম পাতাবাচা খান বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার ঘটনায় তদন্তের অগ্রগতির প্রমাণ হিসেবে হামলার পেছনে ভূমিকা রাখার সন্দেহে আটক ৫ জনকে মিডিয়ার সামনে হাজির করলো পাকিস্তান। শনিবার, তাদের মিডিয়ার সামনে হাজির করে হামলায় তাদের ভূমিকার কথা তুলে ধরা হয়। এদিকে তদন্তে পরবর্তী পদক্ষেপ কী হবে তা নিয়ে নিজেদের মধ্যে আলোচনা করেছেন সেদেশের সামরিক ও গোয়েন্দা প্রধানরা।
শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে ৫ সন্দেহভাজনকে হাজির করেন পাকিস্তানের আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ বিভাগের মহাপরিচালক লেফটেন্যান্ট জেনারেল অসীম বাজ্ওয়া। তিনি জানান, হামলাকারীদের আশ্রয় প্রদান, গাড়ি ও অস্ত্র সরবরাহসহ বেশ কিছু সহযোগিতার অভিযোগে তাদের আটক করা হয়েছে। সেসময়, হামলার মূল হোতা খলিফা মনসুর এবং এক রিপোর্টারের মধ্যকার ফোনালাপের অডিও ক্লিপটি বাজানো হয়। যে নাম্বারটি থেকে ফোন করা হয়েছিল তা আফগান নাম্বার ছিল বলেও দেখান অসীম বাজওয়া। তবে তিনি এও বলেন যে, পাকিস্তান সরকারের কোনও বিবৃতিতেই হামলার জন্য আফগান সরকারকে দায়ী করা হয়নি। কেবল পাকিস্তানের সেনাপ্রধান আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট ও প্রধান নির্বাহীর সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন এবং হামলার তথ্যগুলো তাদের অবহিত করেছেন বলে জানান অসীম।
পাকিস্তানে আফগান সিম বিক্রি অবৈধ উল্লেখ করে তিনি বলেন, পাকিস্তান টেলিযোগাযোগ কর্তৃপক্ষের তরফে আফগানিস্তানের রোমিং ফ্যাসিলিটির ইস্যুটি নিয়ে আলোচনার কথা বলা হয়েছিল তবে তাতে সাড়া পাওয়া যায়নি। বাচা খান বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার ঘটনায় অর্থের উৎস কী তা জানতেও তদন্ত চলছে বলে জানান অসীম।
পাকিস্তানের বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার পর শোকাগ্রস্ত সারা দেশ

এদিকে বাচা খান বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার পর সেখানকার নিরাপত্তা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করতে শনিবার পেশাওয়ার সফরে যান পাকিস্তানের সেনাপ্রধান জেনারেল রাহিল শরিফ। সেখানে সামরিক ও অপারেশন কমান্ডার এবং গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই ও মিলিটারি ইনটেলিজেন্সের প্রধানদের সঙ্গে আলোচনা করেন তিনি। সূত্র: ডন

/এফইউ/বিএ/

লাইভ

টপ